প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:গল্পগুচ্ছ (চতুর্থ খণ্ড).pdf/১৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ԳֆO গল্পগুচ্ছ অভীক তাড়াতাড়ি চৌকি থেকে উঠে মেঝের উপর বিভায় পায়ের কাছে বসে তার হাত চেপে ধরে বললে, “কার সঙ্গে কার তুলনা। আশ্চৰ্য, তুমি আশ্চৰ্য, আমি বলছি তুমি আশ্চর্য! আমি তোমাকে দেখি আর আমার ভয় হয় কোনদিন ফস করে মেনে বসব তোমার ভগবানকে। শেষে কোনো কালে আর আমার পরিত্রাণ থাকবে না। তোমার ঈষা আমি কিছুতেই জাগাতে পারলাম না। অন্তত সেটা জানতে দিলে না আমাকে। অথচ তুমি জান—” “চুপ করো। আমি কিছ জানি নে। কেবল জানি অদ্ভূত, তুমি অস্তুত, সন্টিকতার তুমি আটহাসি।” অভীক বললে, “আমাকে তুমি মুখ ফুটে বলবে না, কিন্তু নিশ্চিত বঝেতে পারি শীলার সম্বন্ধে তুমি আমার সাইকলজি জানতে চাও। ওকে আমার ঘোরতর অভ্যাস হয়ে যাচ্ছে । অলপ বয়সে যেমন করে সিগারেট অভ্যাস হয়েছিল। মাথা ঘরত, তব ছাড়তুম না। মুখে লাগত তিতো, মনে লাগত গব। ও জানে কী করে দিনে দিনে মেীতাত জমিয়ে তুলতে হয়। মেয়েদের ভালোবাসায় যে মদটকু আছে, সেটাতে আমার ইনসপিরেশন। আমি আর্টিস্ট, ও ষে আমার পালের হাওয়া। ও নইলে আমার তুলি যায় আটকে বালির চরে। বঝেতে পারি আমার পাশে বসলে শীলার হৎপিণ্ডে একটা লালরঙের আগন জলতে থাকে, ডেনজাব সিগনাল, তার তেজ প্রবেশ করে আমার শিরায় শিরায়।—দোষ নিয়ো না তপস্বিনী, ভাবছ সেটাতে আমার বিলাস, না গো না— সেটাতে আমার প্রয়োজন ।” “তাই তোমার এত প্রয়োজন ক্লাইসলারের গাড়িতে!" “তা স্বীকার করব। শীলার মধ্যে যখন গব জাগে তখন ওর ঝলক বাড়ে । মেয়েদের এত গয়না কাপড় জোগাতে হয় সেইজন্যেই। আমরা চাই মেয়েদের মাধষে, ওরা চায় পরষের ঐশ্বব্য । তারই সোনালি পণেতার উপরে ওদের প্রকাশের ব্যাকগ্রাউণ্ড। প্রকৃতির এই ফন্দি পরষদের বড়ো করে তোলবার জন্যে। সত্যি কি না বলো।” “সত্যি হতে পারে। কিন্তু কাকে বলে ঐশ্বব্য তাই নিয়ে তক। ক্লাইসলারের গাড়িকে যারা ঐশ্বয বলে, আমি তো বলি, তারা পরষকে ছোটো করবার দিকে টানে।” অভীক উত্তেজিত হয়ে বলে উঠল, “জানি জানি, তুমি যাকে ঐশ্বয বল তারই সবোচ্চ চড়ায় তুমি আমাকে পৌছিয়ে দিতে পারতে। তোমার ভগবান মাঝখানে এসে দাঁড়ালেন।” অভাঁকের হাত ছাড়িয়ে নিয়ে বিভা বললে, “ওই এক কথা বার বার বোলো না। আমি তো বরাবর উলটােই শানেছি। বিয়েটা আটিস্টের পক্ষে গলার ফাঁস। ইন্সপিরেশনের দম বন্ধ করে দেয়। তোমাকে বড়ো করতে যদি আমি পারতুম, श्राभाद्र शनि टन भखि थाकए, ऊा इण-” অভীক কোকে উঠে বললে, “পারতুম কী, পেরেছ। আমার এই দুঃখ যে আমার সেই ঐশ্বৰষ তুমি চিনতে পার নি। যদি পারতে তা হলে তোমার ধমকমের সব बाँक्षम छिरज़ आबाब्र जच्णिनौ झकझ आशाव्र नाटण ७rन माँफ़ाटङ; काळना याथा भानन्छ না। তরী তীরে এসে পৌঁছয়, তব যায়ী তাঁখে ওঠবার ঘাট খুজে পায় না।