পাতা:গল্পগুচ্ছ (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/২১৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8cmも গল্পগুচ্ছ আরম্ভ করিলেন। গানবাজনা আর চলে না। রাজা মধ্যাহ্নে জমিদারি-কাজ দেখিতেন। একদিন সকাল-সকাল অন্তঃপরে গিয়া দেখিলেন, রানী কী-একটা পড়িতেছেন। রাজা জিজ্ঞাসা করিলেন, “ও কী পড়িতেছ।” রানী প্রথমটা একট অপ্রতিভ হইয়া কহিলেন, “বিপিনবাবর একটা গানের খাতা আনাইয়া দটো-একটা গানের কথা মুখপথ করিয়া লইতেছি; হঠাৎ তোমার শখ মিটিরা গিয়া আর তো গান শনিবার জো নাই!” বহুপবে শখটাকে সমলে বিনাশ করিবার জন্য রানী যে বহুবিধ চেষ্টা করিয়াছিলেন, সে কথা কেহ তাঁহাকে স্মরণ করাইয়া मिळ ना । পরদিন বিপিনকে রাজা বিদায় করিয়া দিলেন; কাল হইতে কী করিয়া কোথায় তাহার অন্নমষ্টি জটিবে সে সম্বন্ধে কোনো বিবেচনা করিলেন না। দুঃখ কেবল তাহাই নহে, ইতিমধ্যে বিপিন রাজার সহিত অকৃত্রিম অনরোগে আবদ্ধ হইয়া পড়িয়াছিলেন; বেতনের চেয়ে রাজার প্রণয়টা তাঁহার কাছে অনেক বেশি দামি হইয়া উঠিয়াছিল। কিন্তু, কী অপরাধে যে হঠাৎ রাজার হাদ্যতা হারাইলেন, অনেক ভাবিয়াও বিপিন তাহা ঠিক করিতে পারিলেন না। এবং দীঘনিশ্বাস ফেলিয়া তাঁহার পরাতন তবরোটিতে গেলাপ পরাইয়া বন্ধহীন ব্যহং সংসারে বাহির হইয়া পড়িলেন; যাইবার সময় রাজভৃত্য পটেকে তাঁহার শেষ সবল দুইটি টাকা পরস্কার দিয়া গেলেন। আষাঢ় ১৩o৭