পাতা:গীতাঞ্জলি - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১২৭

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
১১৫
গীতাঞ্জলি


 

১০৩


এই মাের সাধ যেন এ জীবন মাঝে
তব আনন্দ মহাসঙ্গীতে বাজে।
 তােমার আকাশ, উদার আলােক ধারা
 দ্বার ছোট দেখে ফেরে না যেন গাে তারা,
 ছয় ঋতু যেন সহজ নৃত্যে আসে
 অন্তর মাের নিত্য নূতন সাজে।

 তব আনন্দ আমার অঙ্গে মনে
 বাধা যেন নাহি পায় কোন আবরণে।
 তব আনন্দ পরম দুঃখে মম।
 জ্বলে ওঠে যেন পুণ্য আলােকসম,
 তব আনন্দ দীনতা চূর্ণ করি
 ফুটে উঠে ফেটে আমার সকল কাজে।

১৩ আষাঢ় ১৩১৭