পাতা:গীতাঞ্জলি - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৮৩

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৭১
গীতাঞ্জলি
 

৬০


 এবার  নীরব করে দাওহে তোমার
 মুখর কবিরে।
 তার  হৃদয়-বাঁশি আপনি কেড়ে
 বাজাও গভীরে।
নিশীথ রাতের নিবিড় সুরে,
বাঁশিতে তান দাওহে পূরে,
যে তান দিয়ে অবাক কর
 গ্রহ শশীরে।
 যা কিছু মোর ছড়িয়ে আছে
 জীবন মরণে
 গানের টানে মিলুক এসে
 তোমার চরণে
বহুদিনের বাক্যরাশি
এক নিমেষে যাবে ভাসি,
একলা বসে শুনব বাঁশি
 অকুল তিমিরে।

৩০ চৈত্র, ১৩১৬