পাতা:গৌতমীয়-তন্ত্রম্‌.djvu/১০৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


е е ॐै { গৌতমীয়তন্ত্রম ন জীবস্ত ব্রহ্মণ চ সৰ্হৈক্যং তস্ত নিত্যশ: | ন দেহস্ত তদারভ্য নিত্যতা তস্ত কথ্যতে ॥ ৩২ ॥ মনসো বাপি বুদ্ধেশ্চ কস্ত স্তাদিহ শোধনম্। ইত্যাদি সংশয়ং ছিন্ধি ত্বং হি ব্ৰহ্মসমঃ স্কৃতঃ ॥৩৩ ॥ नद्विा ङेदाः । শরীরাকারভূতানাং ভূতানাং ধৰিশোধনম্। অব্যয়ব্ৰহ্মসংযোগাদভূতগুদ্ধিরিয়ং মতা ॥৩৪ ॥ অন্তঃকরণমধ্যে তু জ্যোতিরাত্মা প্রবর্ততে। লিঙ্গদেহন্ত তং প্রাহুর্যোগিনস্তত্ত্ববেদিন ॥ ৩৫ ॥ তস্ত শোধনমাত্রেণ সৰ্ব্বশুদ্ধিঃ প্রজীয়তে । তদেব বিশ্বজনককারণং জন্মকারণম্ ॥ ৩৬ তদ্বিয়োগে ভবেন্মৃত্যুনাঙ্কথা জন্মকেটিভিঃ। ইত্যেতৎ কথিতং সৰ্ব্বং পুরুষাৰ্থন্ত নিগমে ॥ ৩৭ ৷ সৰ্ব্বগুদ্ধির মুলীভূত কারণ। জীব ব্রহ্মের সহিত নিত্য একভাবাপন্ন, সুতরাং উহার গুদ্ধি বলাও অসঙ্গত। ঐ শুদ্ধি দেহেরও বলা যায় না, কারণ দেহকে আশ্রয় করিয়াই সকলের গুদ্ধি এবং উন্থাও নিত্য বস্তু । এইরূপ মন বা বুদ্ধির শুদ্ধি বলিলেও দোষ অতএব ভূতগুদ্ধি দ্বারা কিসের শুদ্ধি হয়, বলিয়া সন্দেহ দূর করুন ॥৩১-৩৩ ৷ নারদ বলিলেন, অব্যয় ব্রহ্মের সস্থিত সংযোগবশতঃ শরীরাকারে পরিণত ভূতসকলের বিশোধনের নামই ভূতশুদ্ধি। অধঃ করণের মধ্যে জ্যোতিৰ্ম্ময় আত্মা বর্তমান আছেন । পণ্ডিতগণ ঐ অন্তঃকরণকেই লিঙ্গদেহ বলিয়া $忆夺可1