প্রধান মেনু খুলুন
এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।


চোদ্দ

সলস্‌বেরী ! কত দিনের স্বপ্ন !...

 আজ সে সত্যিই বড় একটা ইউরোপীয় ধরনের শহরের ফুটপাতে দাঁড়িয়ে । বড় বড় বাড়ী, ব্যাঙ্ক, হোটেল, দোকান, পিচঢালা চওড়া রাস্তা, একপাশ দিয়ে ইলেকট্রিক ট্রাম চলচে, জুলু রিকসাওয়ালা রিকসা টানচে, কাগজওয়ালা কাগজ বিক্রী করচে । সবই যেন নতুন, যেন এসব দৃশ্য জীবনে কখনো সে দেখেনি ।

 লোকালয়ে তো এসেচে, কিন্তু সে একেবারে কপর্দ্দকশূন্য । এক পেয়ালা চা খাবার পয়সাও তার নেই । কাছে একটা ভারতীয় দোকান দেখে তার বড় আনন্দ হোল । কতদিন যেন দেখেনি স্বদেশবাসীর মুখ । দোকানদার মেমন মুসলমান, সাবান ও গন্ধদ্রব্যের পাইকারী বিক্রেতা । খুব বড় দোকান । শঙ্করকে দেখেই সে বুঝলে এ দুঃস্থ ও বিপদগ্রস্ত । নিজে দু’টাকা সাহায্য করলে ও একজন বড় ভারতীয় সওদাগরের সঙ্গে দেখা করতে বলে দিলে ।

 টাকা দুটী পকেটে নিয়ে শঙ্কর আবার পথে এসে দাঁড়ালো । আসবার সময় বলে এল— অসীম ধন্যবাদ টাকা দুটীর জন্যে । এ আমি আপনার কাছে ধার নিলাম, আমার হাতে পয়সা এলে আপনাকে কিন্তু এ টাকা নিতে হবে । সামনেই একটা