পাতা:চিঠিপত্র (দ্বাদশ খণ্ড)-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১৯২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাথেয় নাস্তি”— এখন আমার মনেই বন্ধন, পায়ে টান লেগেছে, পাথেয়ও জুটুল। এবার এখানে নববসন্তের আমন্ত্রণটা ব্যর্থ হবে । ভালো লাগে না এই মনে করে যে, ঋতুরাজের প্রাঙ্গণে বার্ষিক বিদায় আৰ তো বড়ো বেশি জুটবে না । ইতি ১১ মাঘ >こ* > আপনাদের রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর 34 אמ ה-21 "g ט צ હૈં শ্রদ্ধাস্পদেষু আজ পর্যাস্তু আমার বক্তৃতার রিপোর্ট ঠিকমতো হোলোই ন; সভার মধ্যে রিপোর্টারকে দেখলে আমার মন খারাপ হযে যায় । বৰ্ত্তমান যুগের অনেক উপদ্রবের মধ্যে এই উপদ্রব ও অনিবার্যা নিজের গান আমাকে শুনতে হবে দলিত অবস্থায়, নিজের কথা আমাকে পড়তে হবে বিকৃত ভাষায় এ আমার ললাটের লিখন । কিছু কাল পূর্বে সঙ্গীত সম্বন্ধে একটা বকুতা দিয়েছিলেম, আমার নিজের ভালো লেগেছিল অন্য অনেকেরও। একান্ত আশা করেছিলুম, সেটার রিপোর্ট, হবে না, হওয়া দুঃসাধ্য ছিল । অবশেষে কাগজে যখন দেখলুম তাকে, হাসপাতালে অপঘাতগ্রস্ত রোগীর মতো, তার থেকে যে סיר צ