পাতা:চিত্রবিচিত্র-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৬৬

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
৬৪
 


ছবি-আঁকিয়ে

ছেঁড়াখোঁড়া মোর পুরােনাে খাতায়
ছবি আঁকি আমি যা আসে মাথায়
যক্ষনি ছুটি পাই।
বঙ্কিম মামা বুঝিতে পারে না—
বলে যে, কিছুই যায় না তাে চেনা ;
বলে, কী হয়েছে, ছাই!

আমি বলি তারে, এই তাে ভালুক,
এই দেখাে কালাে বাঁদরের মুখ,
এই দেখাে লাল ঘােড়া—
রাজপুত্তর কাল ভাের হলে
দণ্ডক বনে যাবেন যে চ’লে—
রথে হবে ওরে জোড়া।
উঁচু হয়ে আছে এই-যে পাহাড়,
খোঁচা খোঁচা গায়ে ওঠে বাঁশ-ঝাড়,
হেথা সিংহের বাসা।
একে বেঁকে দেখাে এই নদী চলে,
নৌকো এঁকেছি ভেসে যায় জলে,
ভাঙা দিয়ে যায় চাষা।