পাতা:চৈতালি-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


(2 নিবিড়তিমির নিশা, অসীম কাস্তার লক্ষ দিকে লক্ষ জন হইতেছে পার । অন্ধকারে অভিসার, কোন পথ-পানে, কার তরে, পান্থ তাহা আপনি না জানে। শুধু মনে হয়, চিরজীবনের সুখ এখনি দিবেক দেখা লয়ে হাসিমুখ । কত স্পর্শ, কত গন্ধ, কত শব্দ গান, কাছ দিয়ে চলে যায় শিহরিয়া প্রাণ । দৈবযোগে ঝলি উঠে বিদ্যুতের আলো, যারেই দেখিতে পাই তারে বাসি ভালো ; তাহারে ডাকিয়া বলি– ধন্য এ জীবন, তোমারি লাগিয়া মোর এতেক ভ্রমণ । অন্ধকারে অণর সবে অাসে যায় কাছে, জানিতে পারি নে তারা আছে কি না আছে । ২২ চৈত্র ১৩০২ و 8