পাতা:চৈতালি-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৫৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পদ্মা হে পদ্মা অামার, তোমায় আমায় দেখা শত শত বার । একদিন জনহীন তোমার পুলিনে, গোধূলির শুভলগ্নে হেমস্তের দিনে, সাক্ষী করি পশ্চিমের সূর্য অস্তমান তোমারে সপিয়াছিমু আমার পরান । অবসান-সন্ধ্যালোকে আছিলে সেদিন নতমুখী বধু-সম শাস্তু বাকাহীন ; সন্ধ্যাতারা একাকিনী সস্নেহ কৌতুকে চেয়ে ছিল তোমা-পানে হাসিভর মুখে । সেদিনের পর হতে হে পদ্মা আমার, তোমায় অামায় দেখা শত শত বার । নানা কর্মে মোর কাছে আসে নানা জ্ঞান, নাহি জানে আমাদের পরানবন্ধন ; নাহি জানে, কেন আসি সন্ধ্যা-অভিসারে বালুক-শয়ন-পাত নির্জন এ পারে। যখন মুখর তব চক্রবাকদল সুপ্ত থাকে জলাশয়ে ছাড়ি কোলাহল, & ©