পাতা:তীর্থরেণু.djvu/১০১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
তীর্থরেণু
 

কানুর মত শিখব বেণু বৃন্দাবনে গিয়ে,
তোমায় শুধু ক'ৰ্ত্তে খুসী, প্রিয়ে॥
ফাগুন হ'য়ে দিব তোমায় লাবণ্যে ছাপিয়ে,
প্রণয় হ'য়ে সোহাগ দিব, প্রিয়ে!
কবি হ’ব মন গলাতে, রাজা হব সাধ মিটাতে,
নিত্যকালে পেতে তোমায় স্বর্গ হ’ব প্রিয়ে।
সকল সাধন,—সকল পুণ্য দিয়ে।


মনের মানুষ

(সুইডেন্)

সিন্ধু-শকুন শুভ্র পাখা হেলিয়ে চ'লে যায়
মত্ত তুফান ধ'র্ত্তে আসে,— ভয় করে না তায়!
যে দিকে যাক্ ফিরবে কপোত নীড়েই পুনরায়,
পরাণ আমার অহর্নিশি তোমার পানে ধায়;—
ওগো, মনের মানুষ!
জোয়ারের জল হ’ক সে প্রবল, প্রেমের কাছে নয়,
পণ্যবহা নদীর মত অগাধ সে প্রণয়॥
ঝরণা জলের মতন বিমল অমি নিরাময়;
প্রেমের চোখে তা নাহি সদাই জেগে রয়;—
ওগো, মনের মানুষ!
অতল-তলে নামতে পারি আনতে মুকুতায়,—
যেখানে ঢেউ গুমরে কাঁদে মৌন বেদনায়।

৮০