পাতা:তীর্থরেণু.djvu/১২৭

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
তীর্থরেণু
 

অমানুষ মানুষের।
গভীর অবজ্ঞায়
এ দশা আজিকে এর,
তাই পাগলের প্রায়
খুঁজেছে সে বিশ্রাম;
শোচনীয় পরিণাম।

দু’টি হাত ধীরে ধীরে
রাখ গো বুকের ‘পরে,
মরণ-নদীর তীরে
যেন ঈশ্বরে স্মরে।

দোষ তার মেনে নিয়ে,
ক্রটি—সে স্বীকার ক’রে,
সঁপে তারে যাও দিয়ে
বিভুর চরণ ‘পরে।

হুড।


বন্ধন-দুঃখ

পিঞ্জর গড়ি’ গোলাপের শাখা দিয়ে
বুলবুলে আনি’ যতনে রাখিনু তায়,
তবু কোন্ দুখে মরে গেল সে কাঁদিয়ে?
কাননের পাখী বাঁধন সহে না, হায়।

নৈলি।
১০৬