পাতা:তীর্থরেণু.djvu/১২৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
তীর্থরেণু
 

ইচ্ছা করে—বাজাই বীণা;—শুবে কে তা’ আর?
মৃতের জগৎ জাগায় এমন শক্তি আছে কার?
এম্‌নি করে স্বপ্ন মিলায় উড়ো পাখীর সাথে!
মনের মাঝে হারামণি পাই গো গভীর রাতে!

মেং-হৌ-জান্।



বাল-বিধবা

আমার স্বপন,  সুখের স্বপন,
নিমেষে ফুরাল,-এই সে ক্লেশ!
ইন্দ্র ধনুর  ভঙ্গুর তনু
অস্ত রবির কিরণে শেষ।
রিক্ত শাখার  রক্তিম পাতা,
বাতাসে হুতাশে কাঁপিয়া মরি,
নিঠুর জগতে আছি কোনো মতে,
জানিনা কখন পড়িব ঝরি’!
গঙ্গায় ধারা  যতদূর যায়
ওগো দয়াময়! তাহারো পারে
লয়ে যেয়ে এই  সুখ-বঞ্চিত
চির-লাঞ্ছিত ভস্ম ভারে।

ডিয়োজিয়ো।
১০৮