পাতা:তীর্থরেণু.djvu/১৫৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
তীর্থরেণু
 

‘এম্‌নি খবর আমার গো,—
ঝন্‌-ঝনন্! ঝন্‌-ঝনন্! ঝন্‌-ঝনন্!
ভর্‌বে জলে ভাস্‌বে গো
প্রফুল্ল ওই দুই নয়ন।

‘রঙীন বসন ছাড়বে গো!
ঝন্‌-রণন্‌! ঝন্-রণন্‌! ঝন্-রণন্‌!
হাতের কাঁকণ কাড়্‌বে গো!
ছাড়্‌বে গো সব ভূষণ।

‘স্বর্গে গেছেন মল্লদেব;
ঝনন্‌-রন্! ঝনন্‌-রন্! ঝনন্‌-রন্!
ক’রে এলাম ভস্মশেষ,
চিহ্নমাত্র নাই এখন!—নাই এখন!’


নবাব ও গোয়ালিনী

(গুজ্‌রাটি গাথা)

সহর ছেড়ে সেপাই নিয়ে গুজরাটের এক গাঁয়,
ছাউনি ফেলে, নবাব সাহেব বেরুলেন সন্ধ্যায়;
অলিগলির ভিতর দিয়ে চল্‌তে অকস্মাৎ
দেখ্‌তে পেয়ে গোপের মেয়ে ধর্ত্তে গেলেন হাত!
হাত ছিনিয়ে গোপের মেয়ে কট্‌মটিয়ে চায়,—
ঈষৎ হেসে নবাব সাহেব ডেকে বলেন তায়,—

১৩৭