পাতা:তীর্থরেণু.djvu/২০৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
তীর্থরেণু
 

আমরা রসনা, পশ্চাতে তার
তুমি সে প্রজ্ঞা ঋতন্তরা,
তোমারি বিভায় আকাশ আকুল
তোমারি প্রভায় ভুবন ভরা।
তুমি সমুদ্র আমরা তুফান,
তুমি আনন্দ আমরা হাসি;
স্বরূপ গোপন ক'রেছ, হে প্রভু!
লুকাতে পার নি করুণারাশি।
সৃষ্টির কাজে দেখিয়া ফেলেছি,
করুণার মাঝে পেয়েছি দেখা,
কর্ম্মে বচনে অনন্তদেব!
নিশিদিন তুমি জাগিছ একা।

রুমি।


পূজার পুষ্প

হাত দিয়া তুলিব না, পরশে দূষিত হ'বে ফুল,
থাক তারা আলো করি’ তৃণ লতা বনতরুকুল;
সহজ শুচিতা সহ আমি দিনু সৰ্ব্ব পুষ্পদলে,
অতীত ও অনাগত বুদ্ধদের চরণকমলে।

রাণী কোমিয়ু।
১৮২