পাতা:তীর্থরেণু.djvu/৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।
তীর্থরেণু
 

অভিশাপে বরলাভে তুল্য জান,—ক্ষমায় শান্তিতে,
আস্বাদিতে চাহ যদি মহান্ সে বিষন্ন আহ্লাদ,—

এস! সূর্য্য ডাকে তোমা, শুনাবে সে কাহিনী নূতন;
আপন দুর্জ্জয় তেজে নিঃশেষে তোমারে পান ক’রে,—
শেষে ক্লিন্ন জনপদে লঘু করে করিবে বর্ষণ,
মর্ম্ম তব সিক্ত করি’ সপ্তবার নির্ব্বাণ-সাগরে।

লেকঁৎ-দে-লিল্‌।


শিশিরের গান

কাঁদন আজি হায়,
ধ্বনিছে বেহালায়
শিশিরের;—
উদাস করি’ প্রাণ,
যেন গো অবসান
নাহি এর!
রুধিয়া নিশ্বাস
ফিরিছে হা-হুতাশ
অবিরল,
অতীত দিন স্মরি’
পড়িছে ঝরি’ ঝরি’
আঁখিজল।

১৯