প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:নারীর মূল্য-শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/১৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


› ግ পতিব্ৰতা স্ত্রীর সম্মান এই ! অপরিচিত পাপিষ্ঠ অতিথির সেবার তুলনায় স্ত্রীর মূল্য এই ! যাহারা বিল্বমঙ্গলের ভক্ত, তাহার প্রতিবাদ করিয়া বলিবে, অতিথির জন্য হিন্দু প্রাণ দিতে পারে,–কর্ণ পুত্রহত্য। করিয়াছিল । এ-সব কথা আমিও জানি । দাতা কর্ণ মস্ত কাজ করিয়া ছিলেন, বণিকও মস্ত কাজ করিয়াছে। কিন্তু কথা সে নয়। প্রাণটা তোমার নিজের ; ইচ্ছা হয়, সেট না হয় দিতে পারে, কিন্তু এই যে ধারণা—স্ত্রী তোমার সম্পত্তি, তুমি স্বামী বলিয়া, ইচ্ছা করিলে এবং প্রয়োজন বোধ করিলে, তাহার নারী-ধর্মের উপরও অত্যাচার করিতে পারে, তাহাকে রাখিতেও পারে, মারিতেও পারে, বিলাইয়া দিতেও পারে,—তোমার এই অনধিকার, এই স্বেচ্ছাচার তোমাকে এবং তোমার পুরুষ-জাতিকে হীন করিয়াছে, এবং তোমার সতী স্ত্রীকে এবং সেই সঙ্গে সমস্ত নারী-জাতিকে অপমান করিয়াছে । অতিথিসেবা খুব মস্ত ধর্ম হইতে পারে, কিন্তু সেজন্য যেমন তুমি চুরি-ডাকাতি করিতে পারে। না, এটাও ঠিক তেমনি পারো না । ইহুদিরা যখন পশুর মত ছিল, তখন তাহারা সম্পত্তির সঙ্গে স্ত্রীর বখরা করিত। এখনও অনেক অসভ্য জাতি বাড়ী-ঘর জমিজমা গরু-বাছুরের সঙ্গে বাড়ীর স্ত্রীগুলিকেও ভায়ে ভায়ে ভাগ করিয়া লয়। স্ত্রীজাতি-সম্বন্ধে বণিকের ধারণাও প্রায় এমনি । আর অতিথি-সৎকার যদি এতবড় ধর্মই হয়, যার কাছে সতী স্ত্রীর সর্বস্ব নষ্ট করিয়া ফেলাও ধর্ম-পালন, তবে এখনো যাহারা এই ধর্ম রাখিয়া চলে, তাহাদের নীচ বলা শোভা পায় না । আমেরিকার অসভ্য ছিমুক জাতির সম্বন্ধে কাপ্তেন লুইস বলিয়াছেন, ইহারা অতিথির শয্যায় বাটীর শ্রেষ্ঠ কন্যাটিকে, না হয়,স্ত্রীকে পাঠাইয়। দেওয়া অতি উচ্চ অঙ্গের ধর্ম-পালন বলিয়া মনে করে। এশিয়ার চুক্ৰচি জাতি-সম্বন্ধে আরম্যান সাহেব লিখিয়াছেন,—The Chuckchis offer to travellers, who chance to visit them, their wives and also what we should call their daughters’ honour. FfČSR ETTER अl-भू-२ •