প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:পণ্ডিতমশাই-শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়.djvu/৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


-: * পণ্ডিতমশাই r v কথাটা শেষ হইল না, মাঝখানেই কুসুম বিরক্ত ও ব্যস্ত হইয়া বলিয় উঠিল, আবার সেই সব পুরোণো কথা উঠল । মায়ের নামে ওরা ে এত বড় কলঙ্ক তুলেছিল; দায় বুঝি ভুলে বসে আছ ! কুঞ্জ প্রতিবাদ করিয়া বলিল, তারা একটা কথাও তোলে নি। বা লোকে হিংসে ক’রে বদ্‌নাম দিয়েছিল। কুসুম কহিল, তাই ওরা আমাকে তাড়িয়ে দিয়ে আর একটা, বিয়ে করেছিল--কেমন ? কুঞ্জ একটু অপ্রতিভ হইয়া বলিল, তা বটে, তবে কিল ভাতে বৃন্দাবন বেচারীর একটুও দোষ ছিল না। বরং তাঃ বাপের দোষ ছিল । কুসুম শুক মুহূৰ্ত্ত চুপ করিয়া থাকিয় শান্তভাবে বলিল, যার দোষই থাক –যা য় না, বা নয়, দরকার কি একশ বার সেই সব কথা তুলে? আমি পারি নে আর তর্ক করতে। কুঞ্জ প্রথমটা জবাব দিতে পারিল না, পরে একটু রুষ্টম্বরেই বলিল, তুষ্ট ত তক করতে পারিস নে ; কিন্তু আমাকে যে সব দিক দেখতে হয় ! আজ আমি ম’ক্ষে তোর দশা কি হবে, তা একবার ভাবি ? কুসুম বিরক্ত হইয়াছিল, কথা কহিল না । কুঞ্জ গম্ভীর মুখে কহিতে লাগিল, আমি আমাদের মুকুব্বিদের সবাইকে জিজ্ঞেস করেছি, তোর শাউড়ী নলডাঙ্গার বুড়ে বাবাজীর মত পর্য্যন্ত জেনে এসেছে। সবাই খুশী হয়ে মত দিয়েচে, তা জানিস্ ? কুসুমের মুখের ভূব সহসা কঠিন হইয়া উঠিল । কিন্তু সে সংক্ষেপে, জানি বই কি ! থলিয়াই চুপ করিয়া গেল । دينو তাহার কথা লইয়া, তাহার মায়ের কথা লইয়া, তাহার ৮ঠ-বদলের কথা লইয়া, তাদের সমাজে আলোচনা চলিতেছে, গণ্যমন্ত দিগের মত জানাজানি চলিতেছে—এ সম্বাদে তাছাকে যৎপরোনাস্তি ক্রুদ্ধ করিয়া