পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/১২৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


> > ア পাল ও বর্জিনিয়া। তাহার বিপরীত ফল ফলিল। ইহাতে তিনি তাহাকে কহিতে লাগিলেন “ বৎসে ! আমি অনুরোধ করিতেছি বুলিয়া তুমি কদাচ মনে করিও না যে আমি বলদ্বারা তোমাকে কোন বিষয়ে প্রবৃত্ত করিতে উদ্যুক্ত হইয়াছি, কিন্তু যাহাতে তোমার পক্ষে ভাল হয় তাহ তুমি ক্ষণকাল চিন্তা করিয়া দেখ। পরন্তু এ সকল মনের কথা আপাততঃ পালের নিকট প্রকটিত করায় কোন আবশ্যক নাই ” । অনন্তর সন্ধ্যাকাল উপস্থিত হইলে বিৰি দিলাতুর বর্জিনিয়ার সহিত একান্তে বসিয়া আছেন এমত সমযে সেই প্রদেশাধিপতি কর্তৃক প্রেরিত একজন ধৰ্ম্মপ্রবক্তা পুরোহিত তাহীদের সহিত কথোপকথন করিবার বাসনায় উপস্থিত হইলেন । এবং উপস্থিত হইয়াই কহিতে লাগিলেন “ কেমন গো বাছাসকল! কি করিতেছ? ধন্য জগদীশ্বর! এত দিনের পর তোমাদের ভাগ্য পরিবর্ত হইল । দীনদয়াল পরমেশ্বর দরিদ্র লোকদিগকে পরম মুখ-সম্বন্দ সম্ভোগে দিনপাত করাইবার এক উপায় রিয়া দিলেন । মনস্থ্যর দিলাবৰ্দ্দন ই তোমাদিগকে যাহা ২ কহিয়া গিয়াছেন এবং তোমরা তাহাকে যাহা উত্তর করিয়াছ তাহা অামি সমস্তই অবগত আছি” । এই কথা বলিয়া তিনি বিবি দিলাতুরকে পুনৰ্ব্বার সম্বোধন করিয়া কহিলেন “ ভদ্রে ! তোমার যে প্রকার শরীরের অপটুতা দেখিতেছি তাঙ্গাতে তোমার এস্থান পরিত্যাগ করিয়া দূরবর্তি দেশান্তরে शभन कल्ला सूक्लियूङ बजा बाग्न ना; किस्त्र ८डोभाद्ध তনয় বর্জিনিয়ার পক্ষে তথায় না যাওয়া অতি মন্দ