পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/১৮৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাল ও বর্জিনিয়া। S q q. নারীর সম্মতি গ্রহণ করেন না । তাহাতেই এই প্রকার বিশৃঙ্খলভাব ঘটিয় উঠে যে, যুবতী নারী ব্লদ্ধের গলগ্রহ হইয় পড়ে এবং বুদ্ধিমতী ও বিচক্ষণ রমণীও একজন হতভাগ অপব্যয়ীর হস্তে পতিত झशू ?? ! পাৰ –“মহাশয় ! তবে কেন তাহারা এমত বিপরীত বিবাহ করিয়া সাধুসমাজে হাস্যাস্পদ হয় ? যুবকে যুবতী, ব্লদ্ধে বুদ্ধা, এমনরূপ সমযোগ্য বিবাহ হয় না, ইহারই বা কারণ কি ?” । বৃদ্ধ।—ইহার কারণ এই 'ফরাসী জাতীয়ের অনেকেই যৌবনকালে এমন সঙ্গতিপন্ন হয় না যে, তাহার। বিবাহ করিয়া স্ত্রী পুত্র প্রতিপালন করে । সুতরাং বহুকাল পর্যন্ত ধনোপাৰ্জ্জনে নিযুক্ত থাকিয়া, পরে বিবাহ করিয়া সংসার-ধৰ্ম্ম করিতে উদ্যত হয়, কিন্তু সে সময়ে তfহাদের রদ্ধাবস্ত উপস্তিত হয়, সুতরাং তাহাদের সেই বিবাহ মুখকর হয় না” । পাল ।–“ভাল, মহাশয় । বিবাহের পূৰ্ব্বে তাহু!দের ধনোপাৰ্জ্জন করিতেই এত আবশ্যক হয় কেন ?” । রদ্ধ —“তাহারা ধনাবলম্বনে পরিণামে আলস্যে কালযাপন করবে বলিয়াই পূৰ্ব্বে তাহ সংগ্রহ করে”। পাল –“মহাশয় । তাহারা কি নিস্কৰ্ম্ম হইয়। আলস্যে অবশিষ্ট জীবন-কাল যাপন করিতে চাহে ? আমি দৃঢ়বাক্যে কহিতে পারি, যদি আমি তদেশীয় হইতাম ত:হা হইলে নিষ্কৰ্ম্ম হইয়া কদাচ থাকিতাম না” । ৱদ্ধ —বাপু ! বলিলে বটে, কিন্তু ইউরোপেরু, লোকেরা বিবেচনা করে যে, স্বহস্তে কৰ্ম্ম কাৰ্য্য করা