পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/২৩৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


পাল ও বর্জিনিয়া । *ミQ আজি অবধি অনন্ত মুখসম্ভোগের চিন্তনে মন নিৰিষ্ট কর, তাহাতে তোমার অল্প দিনের জন্য যে ক্লেশ হইতেছে, তাহা অক্লেশেই সহ্য হইবেক । ” বৎস পথিক ! আমার এই সকল সান্ত নাজনক বাক্য সমাপ্ত হইলে পর, পাল আমার মুখের প্রতি একদৃষ্টি হইয়া “হায়খ ! সে আর নাই, সে আর আসিবে না ’ বলিতেই মূচ্ছিত ও ছিন্নমূল তরুর মত ভূমিতলে পতিত হইল। অনেকক্ষণ বিলম্বে চেতন৷ হইলে সে প্রকৃতিস্ত হইয়া আমাকে কহিল “ভাল মহাশয়! যদি মরণই এত ভাল বলিতেছেন, ও বজ্জিনিয়া মরিয়া সাভিশয় মুখভাগিনী হইয়াছে, তবে আমিও কেন মরি না ? মরণ হইলে ত তাহার সঙ্গে একত্রে থাকিতে পারিব ’ । এইরূপে অামি পালকে শোকসাগরে মগ্ন ন হইতে দিবার জন্য যতই চেষ্টা করিতে লাগিলাম, ততই তাহার শোকসাগর উথলিয়া উত্তরোত্তর ব্লদ্ধি পাইতে লাগিল। ইহা কিছু বিচিত্র নহে, যাকার প্রথমে কিঞ্চিৎ ক্লেশ ভোগ করে, তাহারাষ্ট ক্লেশ বাড়িলে সহিতে সমর্থ হয়। পাল ত তেমন নয়, সে ইতিপূৰ্ব্বে কখন কোন ক্লেশের মুখও দেখে" নাই । ইহাতে সে একেবারে তাদৃশ অসহ ক্লেশ কিরূপে সহিতে সমর্থ হইবে ? । যাহা হউক, পরে অামি পালকে গৃহে লইয়। আইলাম । আসিয়া দেখিলাম যে, মার গ্রেট ও বিবি দিলাতুরের শরীর শোকে বিশীর্ণ হইয়া গিয়াছে । বিশেষতঃ মার গ্রেটকে অপেক্ষাকৃত অধিকতর দুর্বল বোধ হইল । কারণ এই, যাহার। অপ ক্লেশকে ক্লেশ