পাতা:পাল ও বর্জিনিয়া.pdf/২৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


... 8 পাল ও বর্জিনিয়া হউক, বুঝিলাম এত দিনের পর আমার ক্লেশ দূর করি বার জন্য পরমেশ্বরের ইচ্ছা হইয়াছে, नङ्गबा 4भन যোগাযোগ কখনই ঘটিত না । ” মার গ্রেট এ স্থলে উপস্থিত হইলে পর সৰ্ব্বাগ্রে র্তাহার সহিত আমার আলাপ পরিচয় হয় । আমি এখান হইতে অনধিক তিন ক্রোশ অন্তরে এক পৰ্ব্বতব্যবহিত অরণ্যমধ্যে বাস করি, মার গুেটের বাস এই স্তানে ছিল, তথাপি আমি তাহাকে অতি ঘনিষ্ঠ প্রতিবেশিনীর ন্যায় বোধ করিতাম । প্রজাবহুল নগরের বাটী সকল কেবল প্রাচীর ও রাজপথ মাত্রেই ব্যবহিত হইয়া থাকে, তথাপি তত্রত্য পরিবারদিগের পরস্পর দেখtসাক্ষাৎ হওয়া সংবৎসরমধ্যেও ঘটিয়া উঠা ভার ; কিন্তু এস্থল তেমন নয়, ইহাতে অতি অলপ দিন হইল লোকের বাস করিতে আরম্ভ করিয়াছে, অদ্যপি এখানে ভালমত প্রজ বুদ্ধি হয় নাই। এখানকার লোকদিগের বাট ঘর দ্বার কেবল বন ও পৰ্ব্বতেই ব্যবহিত । পৰ্ব্বত বন ব্যবধান থাকিয়াও আমরা পরস্পরে পরস্পরকে প্রতিবাসী বলিয়। গণনা করিতাম । বিশেষতঃ তৎকালে ভারতবর্ষীয় জনপদের সহিত এস্থানের কোন সংস্রবই ছিল না, এপ্রযুক্ত কেবল বাসস্থানের ঘনিষ্ঠত হইলেই লোকেরদের পরস্পর আত্মীয়তা জন্মিতে পারিত । বাপু হে ! আমাদের সে এককাল গিয়াছে! তখনকার সন্তোষের কথা কত বলিব; বলিতে গেলে শেষ হয় না । যে দিন কেহ এখানে নিমন্ত্রিত হইয়া উপস্থিত হইতেন, ংস দিন আমাদের আমোদ রাখিবার স্থান পাওয়৷