পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/৪০১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বংশ-পৰ্য্যায় আলোচন।। అrs পাই। ক্ৰমত্তাগবতে দেবমীঃ ৰ—চিত্ররথের বংশে, হৃদিক-পুত্র-রূপে পরিচিত অগ্নিপুরাণে বসুদেব পঞ্চাশৎপর্যায়ে অবস্থিত ; কিন্তু তাহার পিতামহ বিছরখ (দেবমীচৰ নহেন)। ব্ৰহ্মপুরাণে দেবী ষ—এক স্থানে (ರ್ತಕ್ಷಿ পুত্ররূপে এবং অপর স্থানে ক্রোষ্ট্রর পৈত্রিরূপে বিদ্যমান। সেই দুই দেবমীনুষের মধ্যে ক্রোষ্ট্র-পুত্র দেবী বের পৌত্র--বস্তুদেৰ । সেখানে শ্ৰীকৃষ্ণ, বলরাম প্রভৃতি-চন্দ্রবংশের চতুর্দশ পৰ্য্যায়ে অবস্থিত। এদিকে আবার, উগ্রসেনের ( শ্রীকৃষ্ণের মাতামহের ) বংশ-পৰ্য্যায় সন্ধান করিতে গেলে, ব্ৰহ্মপুরাণে দেখিতে পাই-তিনি চন্দ্রবংশের একপঞ্চাশৎ পৰ্য্যায়ে বিদ্যমান। হরিবংশেও এই অসামঞ্জস্য ! যেখানেও, বসুদেব চন্দ্রবংশের স্বাদশ পৰ্য্যায়ে অবস্থিত রহিলেও, উগ্রসেন পঞ্চপঞ্চাশং পর্যায়ে বিদ্যমান। অণু, ক্রস্থ্য, তুৰ্ব্বস্থ প্রভৃতির বংশ সম্বন্ধেও এইরূপ গণ্ডগোলের অবধি নাই। বিষ্ণুপুরাণে দেখিতে পাই,–চন্দ্রবংশের পঞ্চদশ পৰ্য্যায়ভুক্ত তুৰ্ব্বক্ষু-বংশ-সস্থত মরুক, দুষ্মন্তকে পোষ্যপুত্র গ্রহণ করেন ; অথচ, ঐ পুরাণের পুরুবংশান্তর্গত দুষ্মন্ত চন্দ্রবংশের চতুৰ্ব্বিংশ পৰ্য্যায়ে বিদ্যমান । হরিবংশে আবার মরুত্তের সম্মত নায়ী কন্যার পুত্ররূপে দুষ্মন্ত পরিচিত। শ্ৰীমদ্ভাগবতে, মরুত্ত-পুত্র দুষ্মন্ত সপ্তদশ পর্য্যায়ে অবস্থিত। ব্রহ্মপুরাণে তুৰ্ব্বসু এবং পুরুর বংশে দুই বার দুষ্মস্তের নাম আছে । পুরুবংশের দুষ্মন্ত, চন্দ্রবংশের বিংশ পর্যায়ে আছেন ; কিন্তু তিনিই আবার চতুর্দশ পৰ্য্যায়-ভুক্ত (তুৰ্ব্বসু-বংশ-সস্তৃত ) মরুত্তের পালক-পুত্র । পুরু-বংশে,—দুষ্মস্তের পুল্লের নাম ভরত ; আর তুৰ্ব্বসু-বংশে তাহার পুত্রের নাম-কক্করোম। নহুষের ভ্রাত। অনেনার বংশ, ব্ৰহ্মপুরাণে এবং হরিবংশে দৃষ্ট হয়। ধন্বন্তরি, দিবোদাস, অলৰ্ক প্রভৃতি এই বংশের প্রধান পুরুষ। এতদ্ভিন্ন হরিবংশে পুরুবংশের অধস্তন অষ্টাবিংশ পৰ্য্যায় হইতে পুনরায় ধন্বন্তরির বংশ দৃষ্ট হয়। তাহার সহিত এই আনেনবংশ-সস্তুত ধন্বন্তরির বংশের পার্থক্য নাই বলিলেও চলে। কিন্তু শ্ৰীমদ্ভাগবতের মতে, তিনি (নহুষ-ভ্রাতা) ক্ষত্ৰবৃদ্ধের বংশ-সমুদ্ভূত ! হরিবংশে, নহুষ-ভ্রাতা আনেনার অধস্তন একাদশ পর্যায়ে ক্ষত্রবৃদ্ধ অবস্থিত । হরিবংশের মতে,—অলর্কের বংশ আছে । ব্ৰহ্মপুরাণের মতে,—তাহার বংশ নাই। ভিন্ন ভিন্ন পুরাণে অলর্কের বংশলতায় নামেরও অনেক ইতর-বিশেষ আছে । * - - উপসংহারে বিশ্বামিত্র ও পরশুরাম প্রভৃতির বংশলত আলোচনা করিতেছি। হরিবংশে, দুই ইলে দুই বংশে, বিশ্বামিত্র ও পরশুরাম বিদ্যমান। প্রথমতঃ আযরাদেখিতে পাই,-আয়ুর তিনি ভ্ৰাত অমাবস্থর বংশে, সপ্তদশ পর্যায়ে বিশ্বামিত্র এবং উনবিংশ প্রধায়ে এ. পরশুরাম বিদ্যমান। তার পর আবার, ঐ হরিবংশের পুরুবংশান্তর্গত রৌদ্রাশ্বের বংশে, দ্বাত্রিংশ পৰ্য্যায়ে, বিশ্বামিত্রের অস্তিত্ব দেখিতে পাই। f বিষ্ণুপুরাণেও বিশ্বামিত্র অমাবস্থর বংশোদ্ভব বটেন, কিন্তু অষ্টাদশ পৰ্য্যায়ে বিদ্যমান ; এবং তাহার পিতামহের নাম (হরিবংশের অনুরূপ ‘কুশিক নহে ) কুশাৰ। খ্ৰীমদ্ভাগবতে, গুরুত্ববী-পুত্র বিজয়ের বংশে (অমাবস্তুর বংশে নহে ) অষ্টাদশ পর্যায়ে_বিশ্বামিত্র ” “रै अप्रै ७०१ अदर अश्रुगुप्लाजवन्त्रनागिरकबरा T { StD DDCBBAAAtttttBBBBB iBB BB DDD DBBD DD BBBBB ধৰে।