পাতা:পৃথিবীর ইতিহাস - প্রথম খণ্ড (দুর্গাদাস লাহিড়ী).pdf/৫৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8ર ভারতবর্ষ । বলিতে সাহসী হন, পাশ্চাত্য-মতাবলম্বী অঙ্গান্ত পণ্ডিতগণও অমনি তাহার প্রতিধ্বনি আরম্ভ করেন। সঙ্গে সঙ্গে এখন, ঐ স্থঙ্কটা প্রক্ষিপ্ত বলিয়া মানিয়া লইয়া, তাহার জাতিভেদ-প্রথার মূলে কুঠারাঘাত করিতে প্রবৃত্ত হইয়াছেন । আমার আবশ্বকামুযায়ী BDD BBSBBB BBBBBBBB BBS BBD uDSBB BBT BBB gBBS ইহ বড়ই অস্তৃত সিদ্ধাস্ত নহে কি ? যদি মানিতেই হয়, সমস্তই মানিয়া লও ; যদি D DBB BDS BBBB B BBBB BBBB BBS BBB BB BB BBB মনে প্রমাণ-সংশয় উপস্থিত করে ; সত্য তথ্য অল্পই নির্ণীত হইয়া থাকে। র্যাহার। জাতি-ধৰ্ম্মের বিরোধী, তাহার শাস্ত্রের অংশ-বিশেষের দোহাই দিয়া আপনাদের BBBBB BBBBS BBBBB BBB BBBB BBBB S BBB BBBSSSBBBBSBBK BBBBBBB BB BBS BBBBB S gB BBBBB BBB BBS BBBBSBBB gBBBBBB BBBS BBBS BB gg BB BBBBBB BBS BB BBBBB BB S BB BBB BB BB BBBS BB BBBB BSBB BBBS BB BBBB BBSBB BBBBS BBBB BBBB BBBSBBB BBBB BBBS BB BBBS B BBBB BBSBBB S শাস্ত্রের একাংশ পরিত্যাগ করিয়৷ অপরাংশ গ্রহণের ফল। ভারতবর্ধের জাতি-ধৰ্ম্ম স্বষ্টির ইতিহাস আলোচনা করিলে দেখিতে পাই,—আগে জাতি, পরে কৰ্ম্মভাগ । ভারতBBB BBB BBBB BBS BBB B BBS BBBB BBBB BBS BBS BBBBBBB DBB BBBS BBBS B BBBB BBBS BB BBBBBBBSBSS BB BBBB BB B BBB B BBBS BB BBBB BBBBB BBBB BB BggSgS BBB BBBBS BBBS BBSBBSBB BBBBB BBBB BBB BBSBB BBB BBBBB gBB BBB BBB S BBBSBBBBB KK BBBB BB BBB BBBBB BB BS BBB এক কথা, যদি আগে গুণ-কৰ্ম্মের বিচারই হইবে, তাহা হইলে, চতুৰ্ব্বৰ্ণ না হইয়া, অসংখ্য ৰণ হওয়ার সন্তাবনা ছিল না কি ? ইহ-সংসারে গুণ-কৰ্ম্মের কি কখনও সংখ্যা নির্দেশ করা যায় ? গুণকৰ্ম্মানুসারে জাতি-বিভাগ হইলে, বংশানুক্রমিক জাতি-বর্ণ কেনই বা অব্যাহত থাকিবে ? তাহা হইলে, ব্রাহ্মণের পুত্র ব্রাহ্মণ, ক্ষত্রিয়ের পুত্র ক্ষত্রিয়, বৈশুের পুত্র বৈশু, পূদ্রের পুত্র শূদ্র,—এরূপ নিয়ম-পদ্ধতিই বা কেন চলিয়া আসিবে ? ভগবান বলিয়াছেন,-গুণ-কৰ্ম্ম-বিভাগ অনুসারে চতুৰ্ব্বৰ্ণ স্বষ্টি করিয়াছি।’ - ইহাতে হৃষ্টি-শব্দের উল্লেখ থাকার, বুঝা যায়,—স্থইর আদি হইতেই জন্মের সঙ্গে সঙ্গেই জাত-ব্যক্তির জাতিধৰ্ম্ম নির্দিষ্ট । হইয়া আছে ; জন্মগ্রহণের পর, বৃত্তি-গ্ৰহণানন্তর, তাহার জাতিধৰ্ম্ম-প্রাপ্তির বিষয় কোনক্রমেই প্রতিপন্ন হয় না। তাহ যদি হইত, তাহা হইলে, এতদিন কোন কালে, কত শূদ্র ব্রাহ্মণত্ব লাভ করিত, আবার কত ব্রাহ্মণ শূদ্ৰস্থ প্রাপ্ত হইত। এই কথার উত্তরে, কেহ কেহ বিশ্বামিত্রের ব্রাহ্মণত্ব-প্রাপ্তির প্রসঙ্গ উথাপন করিয়া থাকেন ; কেহ বা, অন্ত দুই একটা দৃষ্টাস্তের অঞ্চতারণা করিবারও চেষ্টা পান। “ বিশ্বামিত্রের প্রসঙ্গ উত্থাপন করিতে হইলে, প্রথমতঃ বুধিবার প্রয়োজন হয়—কোন বিশ্বামিত্র ক্ষত্রিয় হইতে ব্রাহ্মণ হইয়াছিলেন ? আমরা _শটোকুৰ্বশং নয় কং গুণকৰ্গবিভাগশ: "—শ্ৰীমদ্ভগবদ্গীত ।