প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:প্রহাসিনী-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১০৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মশকমঙ্গলগীতিকা তৃণাদপি সুনীচেন তরোরিব সহিষ্ণুন জানিতাম দীনতার এই শেষ দশা— আমি স্বপ্নে দেখিলাম হয়ে গেছি মশা । কী হল যে দশা—-- মধ্যরাত্রে স্বপ্নে আমি হয়ে গেছি মশা । দীন হতে দীন আমি, ক্ষীণ হতে ক্ষীণ— একমাত্র নামজপ করেছি ভরসা। হিংস্রনীতি নাহি আর, অতিশান্ত নিৰ্বিকার ভক্তের নাসাগ-পরে স্তব্ধ হয়ে বসা— কী হল যে দশা । মধুর মাশবী বেণু নীরব সহসা । পাখা করি নাড়াচাড়া, ভে ভো শব্দে নাই সাড়া— শুধু ‘রাম রাম’ ধ্বনি ডানা হতে খসা, হেন হীন দশ ! জোড়ার্সাকে । কলিকাতা ৩• অক্টোবর ১৯৪০ { ১৩ কার্তিক ১৩৪৭ ]