পাতা:ফিরিঙ্গি-বণিক্.djvu/৮৪

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ফিরিঙ্গি বণিক ব্যবহার প্রতিপালন করিবার স্বাধীনতা লাভ করিয়াছিলেন। মুসলমানদিগের পক্ষেও তা হাতে কোনরূপ বাধা উপস্থিত হয় নাই । ধৰ্ম্মে ও আচার-ব্যবহারে পৃথক হইয়াও, রাজতন্ত্রে ও বাণিজ্যব্যাপারে এই সকল ভারত প্ৰবাসী বিধাৰ্ম্মিগণ ভারতবাসী বলিয়াই পরিচিত হইয়াছিলেন। যে সকল মুসলমান অতি পুরাকাল হইতে মালাবারে বাস করিতেন, DD BDDD YS DBBBDBD KDDDBSS S YDS KK S DDSYS মোপলা । তঁাহারা ধৰ্ম্মান্ধি ছিলেন না । যাহারা মিশর ও পারস্যদেশ হইতে আগমন করিয়াছিলেন, তঁহারা খৃষ্টবিদ্বেষী হইলেও, হিন্দুবিদ্বেষী ছিলেন না। মালাবারে হিন্দু-মুসলমান তুল্যভাবে বাণিজ্যব্যাপারে প্ৰভুত্ব লাভ করিতেন । বরং অনেক সময়ে মুসলমান বণিকেরাই সমধিক প্ৰভুত্বের পরিচয় প্ৰদান করিতেন। মালাবারের হিন্দু, আধবাসিগণ নবাগত বণিক দলকে সাদরে অভ্যর্থনা করিয়া, লাভের লোভে, তাহাদিগের সহিত চিরপরিচিত আত্মীয়ের ন্যায় ব্যবহার করিতেন । ক্রেতার সংখ্যা অধিক হইলেই বিক্রেতার অধিক লাভের পথ উন্মুক্ত হইতে পারে। এই কারণে, মালাবারের হিন্দু অধিবাসিগণ নুতন ক্রেতাকে সমুচিত সমাদর প্রদর্শন করিতে ক্ৰটি করতেন না । * ফিরিঙ্গি বণিকের পক্ষে মালাবার অপেক্ষা ভারতবর্ষের অন্য কোনও স্থান অধিক অনুকূল হইত বলিয়া বোধ হয় না । অন্যান্য প্রদেশ হইতে সম্পূর্ণরূপে বিচ্ছিন্ন হইয়া, মালাবারের সমুদ্রোপকূল বহুসংখ্যক স্বতন্ত্র রাজ্যে বিভক্ত হইয়া পড়িয়াছিল। একটি ক্ষুদ্র বন্দরমাত্ৰই একটি রাজ্যের শেষ সীমা ! তাহার রাজা কেবল বাণিজ্য শুল্ক সংগ্ৰহ করিয়াই অর্থে পাৰ্জনে ব্যাপৃত ! কেহ কখনও তঁহার শাসন-ক্ষমতা অস্বীকার করিবে, কেহ কখনও বাহুবলে রাজ্য আক্ৰমণ করিবার জন্য সদৰ্পে as They welcomed foreign incrchants, as the greater part of their revenues consisted of dues on Sea-trade.-Sir W. Hunter.