পাতা:বঙ্গ-সাহিত্য-পরিচয় (দ্বিতীয় খণ্ড).djvu/৭২৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সহজিয়া-সাহিত্য—রাধারস-কারিকা—১৮শ শতাব্দী। ১৬৬৭ অতএব ক্ষমি দোষ করিবে শ্রবণ। ক্ষতি নাহি এথে কৃষ্ণচৈতন্ত্য-কীৰ্ত্তন ॥ মুঞি যে অপাত্র যদি থাকে বহু দোষ। আপন আপন গুণে পাইবে সন্তোষ ॥ শ্ৰীকৃষ্ণচৈতন্ত নিত্যানন্দ দয়াময়। শ্ৰীঅদ্বৈতচন্দ্র গৌরভক্ত জয় জয় ॥ আমারে করহ সভে কৃপাবলোকন। যুগলকিশোর দাসের এই নিবেদন ॥ শ্ৰীস্নেহমঞ্জরীর পাদপদ্ম করি আশ । এই যে কহিল প্রেম-বিষয়-বিলাস ॥ রাধারস-কারিকা । প্রথমে বন্দিব গুরুদেবের চরণ। যাহার প্রসাদে হয় বাঞ্ছিত পূরণ ॥ অন্ধতা ঘুচএ যার করুণা-অঞ্জনে। অজ্ঞান-তিমির নাশ করে যার গুণে ॥ তবে বন্দো বৈষ্ণব রসিক যার হিয়া। বিকাইনু কিন মোরে পদরেণু দিয়া ॥ শ্রীরূপ-সনাতন-গোসাই-চরণ করি আশ । রাধারস-কারিক ইবে করিয়ে প্রকাশ ৷ যাহা হৈতে কৃষ্ণাশ্রয় ভগবান হয়। সেই বস্তু সাধে ভক্ত জানিবে নিশ্চয় ॥ রাধা ভজে রাধা কৃষ্ণময় পায়্যা। (১) জ্ঞান কাণ্ড জপ তপ দূরে তেআগিয়া ॥ কায়-মনোবাক্যে নিষ্ঠা হয় কৃষ্ণগুণে । তবে কেন নাহি পায় ব্রজে সিদ্ধ জনে ॥ (১) রাধাকে কৃষ্ণের ভাবে বিভোর (কৃষ্ণময়) দেখিয়া রাধাকে ভজন করে ।