পাতা:বাংলাদেশ কোড ভলিউম ২৮.djvu/১৬৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় আইন, ১৯৯০ YGᏑᎼ ৩১। বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতকোত্তর শিক্ষা ও গবেষণা ব্যবস্থার জন্য একটি বোর্ড অব এ্যাডভান্সড় বোর্ড অব এ্যাডভান্সড় ষ্টাডিজ থাকিবে এবং উহা সংবিধি দ্বারা নির্ধারিত পশি পদ্ধতিতে গঠিত হইবে। ৩২। (১) নিম্নবর্ণিত সদস্য সমন্বয়ে অর্থ কমিটি গঠিত হইবে, যথা:- অর্থ কমিটি (ক) ভাইস-চ্যান্সেলর, যিনি উহার চেয়ারম্যানও হইবেন, & (খ) প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর বা, একাধিক হইলে, চ্যান্সেলর কর্তৃক মনোনীত No একজন প্রো-ভাইস-চ্যান্সেলর;] SS ് (গ) কোষাধ্যক্ষ, (ঘ) একাডেমিক কাউন্সিল কর্তৃক মনোনীত একজন উীন, (ঙ) সিন্ডিকেট কর্তৃক মনোনীত একজন ব্যক্তি, so (চ) সিনেট কর্তৃক মনোনীত একজন ব্যক্তি, ് (ছ) সরকার কর্তৃক মনোনীত একজন সরকারী কর্মকর্তা, যিনি যুগ-সচিবের নীচে হইবেন না, - - So (জ) চ্যান্সেলর কর্তৃক মনোনীত একজন অর্থ-বিশারদ।৯ (S) হিসাব পরিচালক অর্থ কমিটির সচিব হইবেন।-- (৩) অর্থ-কমিটির কোন মনোনীত সদস্য দুই বৎসরের মেয়াদে তাহার পদে অধিষ্ঠিত থাকিবেন : so তবে শর্ত থাকে যে, তাহার মেয়াদ শেষ হওয়া সত্ত্বেও তাহার উত্তরাধিকারী কার্যভার গ্রহণ না করা পর্যন্তভিতিহার পদে বহাল থাকিবেন। (৪) অর্থ কমিটি- * (ক) বিশ্ববিদ্যালয়ের আয় ও ব্যয়ের তত্ত্বাবধান করিবে, o (খ) বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থ তহবিল, সম্পদ ও হিসাব-নিকাশ সংক্রান্ত যাবতীয় বিষয়ে সিন্ডিকেটকে পরামর্শ দান করিবে, (গ) সংবিধি দ্বারা নির্ধারিত বা ভাইস-চ্যান্সেলর, সিনেট বা সিন্ডিকেট কর্তৃক so প্রদত্ত অন্যান্য দায়িত্ব পালন করিবে। ৩৩। (১) নিম্নবর্ণিত সদস্য সময়ে পরিকল্পনা ও উন্নয়ন কমিটি গঠিত পরিকল্পনা ও উন্নয়ন হইবে যথা- কমিটি (ক) ভাইস-চ্যান্সেলর, যিনি উহার চেয়ারম্যানও হইবেন, দফা (খ) খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় (সংশোধন) আইন, ১৯৯৯ (১৯৯৯ সনের ১১ নং আইন) এর ৫ ধারাবলে প্রতিস্থাপিত।