পাতা:বাংলা শব্দতত্ত্ব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর -দ্বিতীয় সংস্করণ.pdf/১৯০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ጏ¢\» শব্দতত্ত্ব চলে। রোগাম্পদ, আক্রমণের পাত্র, মৃত্যুর বশীভূত ইত্যাদি প্রয়োগ চলিতে পারে। আমাদের অনেক পত্ৰলেখকই subject কথাটাকে এড়াইয়। চলিয়াছেন। র্তাহারা লিখিয়াছেন কীটশক্র “গাছগুলিকে আক্রমণ করে” । ইহাতে আক্রমণ ব্যাপারকে নিত্য ঘটনা বলিয়া স্বীকার *al of fos subject to attack of son of attai আক্রমণ না হইলেও গাছগুলি আক্রমণের লক্ষ্য বটে । ইংরেজি বাক্যটিকে আমি এইরূপ তর্জমা করিয়াছি – “আমাদের বনের এবং ফলবাগানের গাছগুলি আপন বৃদ্ধিকালের প্রত্যেক পর্বে দলে দলে শক্র কীটের আক্রমণভাজন হইয় থাকে ; ইহারা বাধা না পাইলে শীঘ্রই গাছগুলিকে সম্পূর্ণ নষ্ট করিত ” “What the loss our forest and shade trees would mean to us can better be imagined than described,” পত্রলেখকের তর্জমা —“বন্ত ও ছায়াপাদপের । ক্ষতি বলিতে কতটা ক্ষতি আমাদের বোধগম্য হয় তাহা বর্ণন । করা অপেক্ষ আমাদের অধিক উপলব্ধির বিষয় ।” “বর্ণনা করা অপেক্ষা অধিক উপলব্ধির বিষয়” এরূপ প্রয়োগ । চলে না। একটা কিছু করার’ তুলনা চাই । ‘বর্ণনা করা অপেক্ষ উপলব্ধি করা সহজ’ বলিলে ভাষায় বাধিত না বটে কিন্তু উপলব্ধি করা এবং imagine করা এক নহে । আমাদের তর্জমা —“আমাদের বন-বৃক্ষ এবং ছায়াতরুগুলির