পাতা:বাংলা শব্দতত্ত্ব - রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর -দ্বিতীয় সংস্করণ.pdf/৮৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


ংলা কৃৎ ও তদ্ধিত & (t ফোপানি, গেঙানি, ঘ্যাঙানি, খ্যাচ কানি কোচ কানি (ভুরু ), র্যাকানি (মুখ), খিচুনি ( জাত ) খ্যাকানি, ঘসূড়ানি, ঘুকনি ( চোখ ), চাপুনি, চেঁচানি, ভ্যাঙানি ( মুখ ) রগড়ানি, রাঙানি ( চাখ ), লাফানি, বা পানি । ব্যতিক্রম—বাধুনি ( কথার ), শুনানি, দুলুনি, বুন্থনি ( কাপড় বা ধান ), বাছনি ( বাছাই ) । ধ্বন্যাত্মক শব্দের মধ্যে যেগুলি অমুখব্যঞ্জক, তাহার উত্তরেই অন+ই প্রত্যয় হয়। যথা–দব দবানি, ঝনঝনানি, কনকনানি, টনটনানি ছটফটানি, কুটুকুটুনি ইত্যাদি । অন+ই প্রত্যয়ের সাহায্যে বাংলার কয়েকটি পদার্থবাচক বিশেষ্যপদ সিদ্ধ হয়। দৃষ্টান্ত–ছাকনি, নিড়নি, চালুনি, বিননি (চুলের ) চাটনি, ছাউনি, নিছনি, তলানি (তরলপদার্থের তলায় যাহা জমে ) । ব্যক্তি ও বস্তুর বিশেষণ –রাধুনি ( ব্রাহ্মণ), ঘুম-পাড়ানি, পাট-পচানি ইত্যাদি । न'।। 2ङ]छ् । ন। প্রত্যয় যোগে অর্থের বিশেষ পরিবর্তন হয় না । পাখা, পাখনা ; জাব ( গরুর ) জাবনা ; ফাতা ( ছিপের ) ফাৎনা ; ছোট ছোটনা ( ধান ) । ७Nॉन । বাবুয়ানা, সাহেবিয়ান, নবাবিয়ানা, মুন্সিয়ানা । ই প্রত্যয় করিয়া হিন্দুয়ানি ।