পাতা:বাইবেল পুরাতন নিয়ম ও নতুন নিয়ম.djvu/১০০৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


G.

>ベー> ; ১৬ । ]

১৩ তোমাদের মধ্যে কেহ কি দুঃখ ভোগ করিতেছে ? সে প্রার্থনা করুক। কেহ কি প্রফুল্ল আছে ? সে গান ১৪ করুক। তোমাদের মধ্যে কেহ কি রোগগ্ৰস্ত ? (স মণ্ডলীর প্রাচীনবর্গকে আহবান করুক ; এবং তাহার প্রভুর নামে তার তলাভিষিক্ত করিয়া তাহার ১৫ উপরে প্রার্থনা করুন। তাহাতে বিশ্বাসের প্রার্থনা সেই পীড়িত ব্যক্তিকে হস্থ করিবে, এবং প্রভু তাহাকে উঠাইবেন ; আর সে যদি পাপ করিয়া থাকে, তবে ১৬ তাহার মোচন হইবে । অতএব তোমরা এক জন অদ্য জনের কাছে আপন আপন পাপ স্বীকার কর, ও এক জন অন্ত জনের নিমিত্ত প্রার্থনা কর, যেন হস্থ হইতে পার। ধাৰ্ম্মিকের বিনতি কাৰ্য্যসাধনে মহাশক্তিযুক্ত । যাকোব—১ পিতর । १ ९ ७ ১৭ এলিয় আমাদের স্থায় সুখদুঃখভোগী মনুষ্য ছিলেন : আর তিনি দৃঢ়তার সহিত প্রার্থনা করিলেন, যেন বৃষ্টি না হয়, এবং তিন বৎসর ছয় মাস ভূমিতে বৃষ্টি হইল ১৮ না। পরে তিনি আবার প্রার্থনা করিলেন ; আর আকাশ জল প্রদান করিল, এবং ভূমি নিজ ফল উৎপন্ন করিল । * ১৯ হে আমার ভ্রাতৃগণ, তোমাদের মধ্যে যদি কেহ সত্য হইতে ভ্রান্ত হয়, এবং কেহ তাহীকে ফিরাইয়। ২০ আনে, তবে জানিও, যে ব্যক্তি কোন পাপীকে তাহার পথ-ভ্রান্তি হইতে ফিরাইয়া আনে, সে তাহার প্রাণকে মৃত্যু হইতে রক্ষা করিবে, এবং পাপরাশি আচ্ছাদন করিবে । পিতরের প্রথম পত্র । মঙ্গলবাদ । S পিতর, যীশু খ্ৰীষ্ট্রের প্রেরিত,—পন্ত, গালাতিয়া, কাপ্পাদকিয়া, আশিয়া ও বিথুনিয়া দেশে যে ছিন্নভিন্ন প্রবাসিগণ পিতা ঈশ্বরের পূর্বজ্ঞান অনুসারে আত্মার পবিত্রীকরণে আজ্ঞাবহতার জন্য ও যীশু খ্ৰীষ্টের রক্তপ্রোক্ষণের জন্য মনোনীত হইয়াছেন, ২ তাহীদের সমীপে। অনুগ্রহ ও শান্তি প্রচুররূপে তোমাদের প্রতি বর্তৃক। পরিত্রাণ সম্বন্ধে বিশ্বাসীর প্রত্যাশা। ৩ ধন্য আমাদের প্রভূ যীশু খ্ৰীষ্টের ঈশ্বর ও পিতা ; তিনি নিজ বিপুল দয়ানুসারে মৃতগণের মধ্য হইতে যীশু খ্ৰীষ্টের পুনরুত্থান দ্বারা, জীবন্ত প্রত্যাশার নিমিত্ত ৪ আমাদিগকে পুনর্জন্ম দিয়াছেন, অক্ষয় ও বিমল ও অজর দায়াধিকারের নিমিত্ত দিয়াছেন ; সেই দায়াধি৫ কার স্বর্গে তোমাদের নিমিত্ত সঞ্চিত রহিয়াছে ; এবং ঈশ্বরের শক্তিতে তোমরাও পরিত্রাণের নিমিত্ত বিশ্বাস দ্বারা রক্ষিত হইতেছ, যে পরিত্রাণ শেষকালে প্রকাশিত ৬ হইবার জন্য প্রস্তুত আছে। ইহাতে তোমরা উল্লাস করিতেছ, যদিও আবশ্যকমতে এখন অল্প কাল ৭ নানাবিধ পরীক্ষায় দুঃখীৰ্ত্ত হইতেছ, যেন, যে সুবর্ণ নশ্বর হইলেও অগ্নি দ্বারা পরীক্ষিত হয়, তাহ। অপেক্ষাও মহামূল্য তোমাদের বিশ্বাসের পরীক্ষসিদ্ধত যীশু খ্রীষ্টের প্রকাশকালে প্রশংসা, গৌরব ও সমাদর৮ জনক হইয়া প্রত্যক্ষ হয় । তোমরা তাহাকে না দেখিয়াও প্রেম করিতেছ ; এখন দেখিতে পাইতেছ না, তথাপি তাহাতে বিশ্বাস করিয়া অনিৰ্ব্বচনীয় ও ৯ গৌরবযুক্ত আনন্দে উল্লাস করিতেছ, এবং তোমাদের

  • ১ ৰণজা ১৭ ঃ ১ ।

বিশ্বাসের পরিণাম অর্থাৎ আত্মার পরিত্রাণ প্রাপ্ত ১০ হইতেছ। সেই পরিত্রাণের বিষয় ভাববাদিগণ সযত্নে আলোচনা ও অনুসন্ধান করিয়াছিলেন, তাহারা তোমাদের জন্য নিরূপিত অনুগ্রহের বিষয়ে ভাববাণী ১১ বলিতেন। তাহার এই বিষয় অনুসন্ধান করিতেন, খ্ৰীষ্টের আত্মা, যিনি তাহদের অন্তরে ছিলেন, তিনি যখন খ্ৰীষ্টের জন্য নিরূপিত বিবিধ দুঃখভোগ ও তদনুবর্তী গৌরবের বিষয়ে সাক্ষ্য দিতেছিলেন, তখন তিনি কোন ও কি প্রকার সময়ের প্রতি লক্ষ্য করিয়া১২ ছিলেন। তাহাদের কাছে ইহা প্রকাশিত হইয়াছিল যে, তাহারা আপনাদের জন্য নয়, কিন্তু তোমাদেরই জন্য ঐ সকল বিষয়ের পরিচারক ছিলেন ; সেই সকল বিষয় যাহারা স্বর্গ হইতে প্রেরিত পবিত্র আত্মার গুণে তোমাদের কাছে মুসমাচার প্রচার করিয়াছেন, তাহাদের দ্বারা এখন তোমাদিগকে জ্ঞাত করা গিয়াছে ; আর স্বর্গদূতেরা হেঁট হইয় তাহ দেখিবার আকাঙক্ষণ করিতেছেন । খ্ৰীষ্টীয় স্বভাব । ১৩ অতএব তোমরা আপন আপন মনের কটি বাধিয়া মিতাচারী হও, এবং যীশু খ্রষ্টের প্রকাশকালে যে অনুগ্রহ তোমাদের নিকটে আনীত হইবে, তাহার ১৪ অপেক্ষাতে সম্পূর্ণ প্রত্যাশা রাখ। আজ্ঞাবহতার সন্তান বলিয়া তোমরা তোমাদের পূর্বকার অজ্ঞানতা১৫ কালের অভিলাষের অনুরূপ হইও না, কিন্তু যিনি তোমাদিগকে আহবান করিয়াছেন, সেই পবিত্রতমের ন্যায় আপনারাও সমস্ত আচার ব্যবহারে পবিত্র হও : ১৬ কেননা লেখা আছে, “তোমরা পবিত্র হইবে, কারণ Sb. 5 s 5-8& I 223