পাতা:বাইবেল পুরাতন নিয়ম ও নতুন নিয়ম.djvu/২৪১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


৪ ; ৯ --- ১ ; ১৩ । ] কৰ্ত্ত জ্ঞাতি যখন বোয়সকে কহিল, তুমি আপনি তাহ ক্রয় কর, তখন সে আপনার পাদুকা খুলিয়া দিল। ১ পরে বোয়স প্রাচীনবগকে ও সকল লোককে কহিলেন, অদ্য আপনার সাক্ষী হইলেন, ইলামেলকের বাহী যাহা ছিল, এবং কিলিয়োনের ও মহলেনের যাহাঁ যাহা ছিল, সে সমস্ত আমি নয়মীর হস্ত হইতে ১• ক্রয় করিলাম। আর আপন ভ্রাতৃগণের মধ্যে ও আপন বসতিস্থানের দ্বারে সেই মৃত ব্যক্তির নাম যেন লুপ্ত না হয়, এই জন্ত সেই মৃত ব্যক্তির অধিকারে তাহার নাম উদ্ধারার্থে আমি আপন স্ত্রীরূপে মহলোনের স্ত্রী মোয়াবীয় রূৎকেও ক্রয় করিলাম ; আদ্য আপনার ১১ সাক্ষী হইলেন। তাহাতে নগরদ্বারবত্তী সমস্ত লোক ও প্রাচীনবর্গ কহিলেন, আমরা সাক্ষী হইলাম। যে স্ত্রী তোমার কুলে প্রবিষ্ট হইল, সদাপ্রভু তাহাকে রাহেল ও লেয়ার তুল্য করুন, যে দুই জন ইস্রায়েলের কুল নিৰ্ম্মাণ করিয়াছিলেন ; আর ইক্ৰাথায় তোমার ঐশ্বৰ্য্য ১২ ও বৈৎলহমে তোমার স্বখ্যাতি হউক। সদাপ্রভু সেই যুবতীর গৰ্ত্ত হইতে যে সন্তান তোমাকে দিবেন, তাহ। দ্বারা তামরের গর্ভজাত যিহূদার পুত্র পেরসের কুলের স্তায় তোমার কুল হউক । রূতের বিবরণ – ১ শমূয়েল।

  • ○○

পরে বোয়স রূৎকে বিবাহ করিলে তিনি তাহাৰু স্ত্রী হইলেন, এবং বোয়স তাহার কাছে গমন করিলে তিনি সদাপ্রভু হইতে গৰ্ত্তধারণশক্তি পাইয়া পুত্র প্রসব ১৪ করিলেন। পরে স্ত্রীলোকের নয়মীকে কহিল, ধন্ত সদাপ্রভু, তিনি অদ্য তোমাকে মুক্তিকৰ্ত্ত জ্ঞাতি হইতে বঞ্চিত করেন নাই ; তাহার নাম ইস্রায়েলের মধ্যে ১৫ বিখ্যাত হউক । [ এই বালকট ] তোমার প্রাণ পুনরায় স্বস্থ করিবে, ও বৃদ্ধাবস্থায় তোমার প্রতিপালক হইবে: কেননা যে তোমাকে ভাল বাসে ও তোমার পক্ষে সাত পুত্র হইতেও উত্তম, তোমার সেই পুত্রবধুই ইহাকে ১৬ প্রসব করিয়াছে। তখন নয়মী বালকটকে লইয়া নিজের ১৭ কোলে রাখিল, ও তাহার ধাত্রী হইল। পরে ‘নয়মীর এক পুত্র জন্মিল”, এই বলিয় তাহার প্রতিবাসিনীগণ তাহার নাম রাখিল ; তাহারা তাহার নাম ওবেদ রাখিল। সে যিশয়ের পিতা,আর যিশয় দায়ুদের পিতা। ১৮ পেরসের বংশাবলি এই । পেরসের পুত্র হিন্ত্ৰোণ ; ১৯ হিষোণের পুত্র রাম ; রামের পুত্র অষ্মীনাদব ; অষ্মীনা২• দবের পুত্ৰ নহশোন ; নহশোনের পুত্র সল্মোন ; ২১ সলমোনের পুত্র বোয়স ; বোয়সের পুত্র ওবেদ ; ওবে২২ দের পুত্র যিশয় ; ও যিশয়ের পুত্র দায়ুদ । \లి শমুয়েলের প্রথম পুস্তক। শমুয়েলের জন্ম । Ş পৰ্ব্বতময় ইক্রয়িম প্রদেশস্থ রামাথয়িম-সোফীমনিবাসী ইল্কান নামে এক জন ইফ্রয়িমীয় ছিলেন; তিনি সুফের বৃদ্ধ প্রপৌত্র, তোহের প্রপৌত্র ২ ইলাহুর পৌত্র, বিরোহমের পুত্র । তাহার দুই স্ত্রী ; এক জনের নাম হান্না, আর এক জনের নাম পনিম্ন। ; পনিম্নার সন্তান হইয়াছিল, কিন্তু হান্নার সন্তান হয় ৩ নাই। এই ব্যক্তি প্রতিবৎসর আপন নগর হইতে শীলোতে গিয়া বাহিনীগণের সদাপ্রভুর উদ্দেশে প্রাণপাত ও বলিদান করিতেন। সেই স্থানে এলির দুই পুত্ৰ হফুন ও পীনহস সদাপ্রভুর যাজক ছিল। ৪ আর যজ্ঞের দিনে ইল্কান। আপন স্ত্রী পনিম্নকে e ও তাহার সমস্ত পুত্রকন্যাকে অংশ দিতেন ; কিন্তু হান্নাকে দ্বিগুণ অংশ দিতেন ; কেনন। তিনি হান্নাকে ভাল বাসিতেন, কিন্তু সদাপ্রভু হান্নার গন্ত রুদ্ধ করিয়া৬ ছিলেন। সদা প্ৰভু তাহার গন্ত রুদ্ধ করাতে সপত্নী তাহার মনস্তাপ জন্মাইবার চেষ্টায় তাহাকে বিরক্ত ৭ করিতেন। বৎসর বৎসর যখন হান্না সদাপ্রভুর গৃহে যাহতেন, তখন তাহার স্বামী ঐক্কপ করিতেন, এবং গনিন্নাও ঐ প্রকারে তাহাকে বিরক্ত করিতেন ; তাই ৮ তিনি ভোজন না করিয়া ক্ৰন্দন করিতেন। তাহতে তাহার স্বামী ইল্কান তাহকে কহিতেন, হান্না, কেন কাদিতেছ ? কেন ভোজন করিতেছ না ? তোমার মন শোকাকুল কেন ? তোমার কাছে দশ পুত্র হইতেও কি আমি উত্তম নহি ? ৯ একদা শীলোতে ভোজন পান সাঙ্গ হইলে হান্না উঠিলেন। তখন সদাপ্রভুর মন্দির দ্বারের কাছে এলি ১• যাজক আসনের উপরে বসিয়া ছিলেন। আর হান্না তিক্তপ্রাণী হইয়া সদাপ্রভুর উদ্দেশে প্রার্থনা করিতে ১১ ও অনেক রোদন করিতে লাগিলেন । তিনি মানত করিয়| কহিলেন, হে বাহিনীগণের সদাপ্রভু, যদি তুমি তোমার এই দাসীর দুঃখের প্রতি দৃষ্টিপাত কর, আমাকে স্মরণ কর, ও তাপন দাসীকে ভুলিয়া না গিয়া আপন দাসীকে পুত্রসন্তান দেও, তবে আমি চিরদিনের জন্ত তাইকে সদাপ্রভুর উদ্দেশে নিবেদন ১২ করিল ; তাহার মস্তকে ক্ষুর উঠি-ব না। যতক্ষণ হাল্লা সদাপ্রভুর সাক্ষাতে দীর্ঘ প্রথনা করিলেন, ততক্ষণ ১৩ এলি তাহার মুখের দিকে চাহিয়া রহিলেন । কেননা হান্ন। মনে মনে কথা কহিতেছিলেন, কেবল তাহার 231