পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/১১০১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


Ö עו t8)"ו בסטאוואי যে অবধি তারা-হার, মুদি না আর আঁখি-তার, ছনয়নে শতুধারা, বহিছে সদাই,— আজি নিদ্রে এলে যদি, মিলাইলে হারানিধি, শেষে মুখে হয়ে বাণী, কেন লুকাইলে তারে। পুন আমি মুদি আঁধি, শয়ন করিয়া থাকি, উমা এনে মেলাও দেখি, হেরি সে চাদমুখ,— আমার সে স্বর্ণলতা, না বলিতে দুটো কথা, দিয়ে আমার গুণে বাধানিলে তারে কোথাকারে খট-ভৈরবী-একতাল।। গিরি, কি মৃধাও হে সমাচার। বলতে সে স্বপন, না সরে বচন, খেদে পোড়ে মন বহে অশ্রুধার ॥ নিশিতে যেমন, ভেবে উমাধন, অনেক আয়াসে মুদোছ নয়ন, অমনি স্বপনে করি দরশন, শিয়রে বসিয়া যেন মা আমার । বাছার নাই সে বরণ, নাই আভরণ, হেমাঙ্গী হইয়াছে কালীর ধরণ, হেরে তার আকার, চিনে উঠা ভার, সে উমা আমার, উমা নাই হে আর উমা বসিয়ে শিরে, কহিল কাতরে, কত আর দয়া থাকিবে পাথরে, ভিখারীর করে, সমপর্ণ করে, কেন তত্ত্ব ফিরে, লও নাম একবার ॥ க ஒ ললিত—একতাল।। ভরসা তোমার নাথ, ভরসা তোমার। তোমা বিনে দীনহীনের, বল কেবা আছে আর ॥ অধম পাতকী বলে, তোমা বই কে লবে কোলে, পাপাত্মার আর্তনাদে, দয়া হ’বে আর কার। তনয়ের নয়ন-জল, পিতা বই কে মুছায় বল, কে আর করে শীতল, তাপিত প্রাণ তাহার ? সাক্ষাং পাপের অংশে, জন্মেছি হে দৈত্যবংশে, আপনি আপন ধ্বংসে, করিতেছি পাপাচার । জজ্ঞান অবোধ ছেলে, পিতৃ-আজ্ঞা অবহেলে, পিতে তারে, তার তরে, করে কি হে পরিহার। ক্ষমার আধার তুমি, নানা পাপে পাপী আমি, তাই কি হে বিশ্বস্বামী, করিবে না দীনে পার। Ö 2 o' 2 কেহ কল্পতরু-কাছে, কাতরে যদি হে যাচে, পাপী দেখি, করে না কি, সে বাসনা পূর্ণ তার। নিজগুণে দয়াময়, দেহ দাসে পদাশয়, এস ওহে মনোময়, মনোমন্দিরে আমার ;– মুদিয়ে যুগল-আঁখি, যদি তোমায় হলে রাখি, যায় প্রাণ যাকৃতায়, মমতা কি আছে আর ॥ আজি কি মুদিন মম—আজি কিবা শুভক্ষণ । হরি-প্রেমামৃত-লোভে করিব গরল ভক্ষণ ॥ হরি বোলে বিষপানে, যদি আমি মরি প্রাণে, এর সম ভাগ্য মম, হবে কি আর কখন । অনুক্ষণ পাপে তাপে, জ্বলিতেছি অনুতাপে, তাহে হলাহল-তাপে, যদি আরো অঙ্গ তাপে, আছে কি সস্তাপ তায়, . না হলে সস্তপ্তকায়, কে কবে জানিতে পায়, ছায়া সুখদ কেমন। যদি হরিপদ-ধ্যান, যদি হরি-গুণ-গান, যদি হরিনামামৃত পান করে থাকে মন ;— তবে আর হলাহল, আমায় কি করিবে বল; সৰ্প-বিষে, মরে কি সে, সুধাপায়ী যেই জন । ভৈরবী—ফেরত । নাহি চাই রাজা ধন জন, ও হে ভক্তের জীবন, দেহি এই বর, ওহে পিতাম্বর, যেন নিরস্তর ভাবি শ্ৰীচরণ হে। নাহি চাহি ইনপদ ব্রহ্মপদ, কি ছার মিছার ধন রাজ্যপদ, শিবের সম্পদ, তব যেই পদ, দেহি দাসে সেই পদ-কোকনদ, মম এই আকিঞ্চন হে। ভাগ্যগুণে যেই চিন্তামণি পায়, . সে কি নাথ, আর তুচ্ছ কাচ চায়, তুমি বিভো, হও সুপ্রসন্ন যায়, সেকি ভুলে আর বৈভব-মায়ায়, তুমিই সাধনের ধন হে। সাযুজ্য, সালোক্য জীবন্মুক্তি আর, কিছুতেই নাই বাসনা আমার, ওহে বিশ্বাধর, জীপদে তোমার,