পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/২৬৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


রাম বস্তু । ফুটিতে না পারি হয়, যেমন বোলার স্বপ্নসম প্রায়ু । মন গুণ মনে জ্বলে, নয়নজলে, হয়ে প্রবলে ॥ এই কোরে, প্রেম গোপনে রেখো। কেহ না জানে তুমি আমি বই, কথা প্রকাশ কোরোনাকো । দেখো প্রাণ অতি সাবধানে থেকে । তোমায়ু আমায় একতা, কেউ শুনেন যেন একথা । পথে দেখা, হোলে সখা, নয়ন ঠেরে সঙ্গেতে ডেকে ॥ পিৰীতের আশা, আমার নিরাশ ল| হয়। কুলনারী সদাই কোরি, কলঙ্গেরি ভয় । যৌবন করেছি দান, তার দক্ষিণ দিলাম কুলমান, ন হই যেন অপমানী, গুণমণি, দেখো হে দেখো ৷ অবল, আমি সরল, তায় কুলবর্তী। প্রেমের আশে, পাছে শেষে, বলে অসতী ॥ মনের মিলনে মনে থাকৃবে দুজন । তুমি কেবা আমি কেবাচেন যাবে না। ঘন চাতকিনী প্রায়, প্রেম সমানে থাকৃবে দুজনায়। মেঘে যেমন শশী ঢাকা, ! তেমনি সখা, লুকায়ে থেকে ॥ g হায় রে পিরীতি, তোর গুণের বালাই নে মরি। যখন ধারে পাও, তার মুখ দুখ সব ঘুচাও, তুলে সিংহাসনে, কর পথের ভিখারী। তোমার তরে সদা ঝোরে হে কি পুরুষ কি নারী | একবার যার সঙ্গে যার পিরীত হয় । সে তার নয়নতার, আর কিছুই কিছু নয়। ভাবি জন্মে যার মুখ না দেখিব আর, আবার দেখা হোলে তার সেই চরণে ধরি। 最* কি ক্ষণে এ প্রেমে লাগলো, প্রেম আমি জন্মে ভুলতে পারিনে । , $ዊ © দুখভোগ,অনুযোগ, তবু না দেখলে তো লাচিনে। কেমন কোরে রেখেছিস্ আমায়। ভারে না দেখলে প্রাণ আর কোথাও না জুড়ায়। মন স্বর্গপথে যেতে বর্গ মানে না, আমি চতুৰ্ব্বৰ্গ ফল পাই চাদবদন হেরি। হার, প্রেমের প্রেম মনে উদয় হোলে, সাধ্য কি বাধ্য রাখি । তিলেক না হেরে বিরহবিকার, পলকে পলকে প্রলয় দেখি ॥ প্রেমমুধা পান যে করে, তারো নাহি থকে কোন খেদ । স্বপক্ষ বিপক্ষ প্রেমে শত্রু মিত্ৰ নাহি ভেদ । নাই উঠতে বোসতে শক্তি ধার। শুনে প্রেমের কথা, ধায় সাত সমুদ্রপার । প্রেমে বোবায় কথা কয়, কাণায় চক্ষু পায়, আবার পক্ষু এসে হেসে লভলায় গিরি। ধিকৃ সে প্রাণকাস্তে, এলো না বসন্তে । রমণী রাখিয়ে ভুলে আছে কি ভ্রান্তে । সে যে গিয়েছে দূরদেশ, আছি কি মেরেছি করে না উদ্দেশ । পতি হেয়ে সঁপে গেলে, মদন দুরস্তে ॥ একা রেখে যুবতীকে, গেল দেশান্তর, তার বিরহেতে প্রাণ আমার দহে নিরস্তর। সে বিনে এ যৌবন-রতন, বলো রক্ষক কে, করিবে রক্ষণ । কাহার শরণ লোই বিনে প্রাণকান্তে ॥ প্রিয়জনে ত্যজে প্রিয়জন, আছে কেমনে । হোলো না কি তার দয়া রমণীরতনে ॥ কন্যাকালের কথা মনে হোলে বড়ে শোক । আমার জনক তারে দিলেন দান, দেখিয়া সুলোক । করে করে কোরে সমর্পণ, তারে বোল্লেন, মুখে কোরো হে পালন। কথা ন হোলো পালন, সঁপিলেন কুতন্তে ॥ যে কোরেছে যাহার সহ পিত্নীতি ব্যাভার। সেই সে বুঝেছে সখি মরম তাহার। পরেতে পরের মন কে পেয়েছে কার।