পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৩৫১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


कमणकiस्g | তরু পবন-বলে সদাই দোলে, প্রাণ কাপে মা ! থাকৃতে গাছে ॥ বড় আশা ছিল মনে, ফল পাব মা এই তরুতে । তরু মুঞ্জরে না শুকায় শখ, ছটা আগুন বিগুণ আছে । কমলাকাস্তের কাছে ইহার একটী উপায় আছে। জম্মুঙ্গর মৃত্যুহরী, তারা-নামে ছেচলে বাচে। ঝিল্মিট-একতাল।। যতন কোরে, ডাকি তোরে, আৰু আয়, মন শুয়া পাখি। কালী-পাদপদ্ম পিঞ্জরে, পরমানন্দে থাক দেখি ॥ সদা শুন কুমন্ত্রণ, নিত্য নতন বিড়ম্বন, মায়ের নাম-মুধায় ভাঙ্গ ক্ষুধা, কুসস্তানে দিয়ে ফঁকি ? পাইয়া পরম ধাম, মুখে ডাক মায়ের নাম, এসো অনিত্য বাসনা ত্যজি, নিত্য মুখে হওন সুখী ॥ কমলাকাস্তের মন, ত্যজ অন্ত আরাধন, | এসো কালী মামে ডঙ্গা দিয়ে, শঙ্কা ত্যজে বসে থাকি ॥ ம்_. থষ্ট কালুংড়া-পোস্ত । ঞ্চে রে, পাগলীর বেশে, দিগবাসে, কার রমণী । , চিকুর অসুয়েছে, হইয়াছে বিবসনী ॥ নর-কর কোমরে বাম করে অসি ধরে ; ; দশনে চমকিত, লোল রসনা-বদনী ॥ ও বিধুবদনে হাসি, সুধা ক্ষরে রাশি রাশি ; ঐ বেশে নিস্তারিখে, কমলেরে গো জননি । রামপ্রসাদী-সুর-একতাল।। তারা মা ! যদি কেশে ধোরে তোল । তবে বাচি এ সঙ্কটে ॥ আমার একুল ওকুল দুকূল পাথার, মধ্যে সাতার বিষম হলো ॥ i বিবসন সমরে ૨૬છે করেছিলেম যে ভরসা, না পুরিল সে সব আশ। ভুললে তখন ভুবলে এখন, আর কখন কি করবে বল । কমলাকাস্তের ভার, মা বিনে কে লবে আর ; ওমা! চরণতরি শরণ দিয়ে, সঙ্গে লৈয়ে দেশে চল ॥ বেহাগ – একতাল । কালি! কত জাগিয়ে ঘুমাও, গে। আমি কেমনে, তোমারে জাগাইব ॥ তুমি মুমতি কুমতি, পুরুষ প্রকৃতি, তুমি শুষ্ঠ সঙ্গেতে মিশাও। কারে রাধ তন্ত্র মন্ত্র আরাধনে, কারে ভ্রান্তি রূপেতে ভ্ৰমাও। করে দেহ ধন্ত্র.সাধনা মন্ত্রণ, করে যন্ত্রণা যোগীও | কমলাকান্ত নিতান্ত অনুগতে, নাম রসে বিরমও ॥ '......छ পু ত্ৰিী-একতাল।। পাগলীর বেশে মোহিনী কে বিহুরে রে! নর-কর কোমরে, অলিবর বামকরে ধরে ॥ ডিমিক ডিমিক ডমরু বাজে, হরহুদি পরে তামা বিরাজে, রণ সমাজে, না করে লাঞ্জে, কুলরমণী বীমা কে এলো রে ॥ মৃদু মৃদু হাসে, চপল প্রকাশে, কমলেরি আশপুরে। পরজ-কাল|ংড়া জলদ তে তাল । হায় গে| অমার কি হইলে, হৃদি সরোরুহ-দলে । কালো কামিনী লুকালো ॥ যখন মঞ্চম মুদিয়ছিলাম, তখনি ছিল, গগুলো হলো ছাই, তাদের সঙ্গে ভেসে যাই, চাহিতে চঞ্চল মেয়ে, পলকেতে মিশাইল । ধরিতে গেলে আমার ধরে, ' ডোবে ডুবায় প্রাপট গেল। আমার কি মুন্দরী, অতুল পদ রাতুল, আদ্য ঘামে হংস যেমন অংশুক্তে উজ্জ্বল।