পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৪০১

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কালী মির্জল । দোহার উপজে মান, কেহ না থাকে প্রমাণ, উভয়েরই মান যায় বাড়িতে বাড়িতে ॥ ঝিল্মিট -মধ্যমান । আর কি তারে কভু পারবে ত্যজিতে। তিল আধ পরমাদ না পেলে দেখিতে ॥ কতই বলেছি মানে, সে কথা কি মন মানে, বুঝতে পারে কি আনে, তরে না হেরিতে ॥ िित?-य६ायन । সই, যে যার মরমে লাগে, সেকি তারে ত্যজিতে পারে । না ঘুচে আঁখির আশা ওমুখ হেবে। যার যাতে মজে মন, সে তার পরমধন, সতত সে প্রাণপণ করে তাহারে। O तितिाप्ले-भर्ष tभ1भ । তুমি যদি আমি হইতে এমনি দৃংগী আমি হইতে ভালবাসার আশায় নিচ্ছেদ জানিতে, আমায় তবে একি পরিচয় হষ্টত দিতে ॥ ജ് ബു ঝিঝিট—মধ্যমান । পারিতে মুখ হ’ল ন হ’ল, আমার তাহাতে কিবা কল । আমার আশায় পরাণ নাশ হয় হয়ত সেও ভাল। সুধিবে জগতে মরেছে পীরিতে জানিবে ত সকল । আমার তাহে খেদ তোমার বিচ্ছেদ হৃদয়ে কালি র’ল ৷ জংলী—এক ভ}লা । যারে না হেরিলে পেড়ে প্রাণ, কেন তারে দেখিলে উপজে মন ॥ শোন প্রাণসই দুখ তোরে কই ইহার প্রমাণ ॥ না হেরি যখনি মণিহারা ফণী হয়ে থাকি মিয়মাণ আমার অধিক সে নহে ততোধিক fধক ধিক হেন প্রাণ ॥ موسم معه حسمه i পথিক দেখিতে পাই, ૭ માં તે কফি সিন্ধু—ভাল যং । কহ প্রাণ কেমন ছিলে, মুখেতে নিশ বঞ্চিলে । শরীর অবস, নয়নে অলস, ঘুমে ভূমে পড়িলে । তব ধ্যান কর,গোয়াই শর্করী,ভাসিয়ে নয়নজলে । তুমি অনেকের প্রাণ, আমাব এ প্রাণ, কি হবে তোমার গেলে । বহিfব—-অীড়া | আইল বসন্ত প্রিয়ে বিরজে তব শরীরে। কাঞ্চন ভূষণ যেন, বাঙ্কারে লমরগণ কোকিল কণ্ঠ ভিতরে ॥ করি চন্দন লেপন, পরেছ পীত বসন, প্রকাশে কুসুম-বন রজনী অন্তরে । তব গমনাগমনে বঙ্গে মলয় পবন ভীত হয়ে শীত যায়ু দূরে ৷ ব1হার—অডিা । মুখের বসন্ত হ’ল, সকলের কান্ত এল মম প্রিয়তম বিনে সকলে এল । লেগেতে ধাইয়ে যাই, નનિ કે ડી'જ્ઞ હ’ન || কোকিলের কুন্থরল, শুনি হইয়ে নীরব, রব প্রাণে কেমনে বল । সখি এসে মনমথ, মনমত করিছে বাণঘাত, হই ভূতলে পতিত কি বিষম কাল ॥ , - সিন্ধু-—মধ্যমাণ । হ’ল যৌবন ভারি আমি আর ত রইতে নারি। তরণী নাহিক অরে বিনে কাণ্ডারী ॥ অনঙ্গে অবশ অঙ্গ, নহি করে অঙ্গ সঙ্গ, বিনে পতি এ হর্গতি হ’ল আমারি ॥ সিন্ধু—মধ্যমান । সদkেতে প্রাণ সপেছি যাহারে । জীতে কি ত্যজিতে পারি তাহারে । যদি বা কচিং সেই অনুচিত, আমার কদাচিং, চিত না ফেরে। উপজিয়ে মন হই অন্ত মন, অন্য অন্বেষণ মনেত্বে করে ।