পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৫১৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


8૨૭ मल्लांब्ब-कांGप्रांजौ । গেল গেল দিন অকারণ। এলে কি কারণ ভবে, ভবে যে সত্তবে, ভাৰ রে ভবের আরাধ্য ধন-কৃষ্ণধন । তুমি কার কে তোমার—একমাত্র আছে সার, ত্রিসংসার মাঝে নিধি প্রশংসার ;– সেই সারাৎসার, সার ভরসার, সংসার নৈরাশার বাসার আশা ছাড় এখন । ভাব রে ভাবের নিধি, যে নিধি বিধির বিধি বিধির বিধি যে বিধির কৃপায় ;– যারে রাখালেরা পায়, তাদের দেন উপায়, পায় পায় দোষী রসিক পায় না পায় শ্ৰীচরণ ॥ 1_ாம்ா ভৈরবী—একঙালা । কে বলে রে হরি দয়াময় । কি হৃদয় নিদয় ; কৃপাসিন্ধু হ’লে কি তার বিন্দুদানে ক্ষতি হয় । ওরে প্রহলাদ গুণমণি, কোথায় তোর চিন্তামণি, এমন বিপদকালে ভাই রে— শুনেছি নাম নিলে তার, ভববন্ধন রয় না আর, মুক্ত হয়ে চরণে পায় ঠাই রে— বালাই লইয়ে ম’রে যাই রে,— হেন দয়াময় যদি, তবে কেন গুণনিধি, তব প্রতি হ’লেন কৃষ্ণ নিরদয় ॥ -யா আলাইল্পী-একতালা । এ সময়ে কোথা নারায়ণ । ব্ৰহ্মপরায়ণ ; আমি তব নাম স্মরি, (হরি হে, ) বিষয় বিষে তরি, সর্পবিষে বুঝি যায় হে জীবন। তব নামের গুণে ওহে দীনবন্ধু, মৃত্যুঞ্জী হর খেয়ে বিৰসিন্ধু ; আমি যদি হরি, বিষ পানে মরি, নিষ্কলঙ্ক নামে হবে কলঙ্ক ঘটন। शांद्रा-४खब्रर्दौ-कां७ब्रांजौ । ভক্তাধীন সেই ভগবান । প্রস্থলদে করিয়ে দয়া করিলেন ত্ৰাণ। গুণের নাহিক অস্ত, পাতালে যিনি অনন্ত, | অনন্ত মহিমা তার বেদে করে গান ;– বাঙ্গালীর গান । স্বষ্টি স্থিতি প্রলয়কারী দেবের প্রধান;— রসিক অস্তিমে চায় শ্ৰীচরণে স্থান । ॐांच्षांड-ब९ ॥ ঈশান পাষাণী তুই চিরকাল। ও তোর রঙ্গ দেখে পদতলে পড়ে আছেন মহাকাল । একে তুই উন্মত্তা রণে, থাকিস শ্মশানে মশানে, মুগ্ধ কল্লি জগজনে, পেতে মায়াজাল । কে জানে তোর অস্ত শিবে, মায়ায় মোহিত কল্লি শিবে, দয়া করি ঘুচাও শিবে, রসিকচন্দ্রের মায়াজ’ল ৷ মুলতান -একতাল । বল মা কেমনে তরি, এবার ডুবিল আমার তনুতরী। ভবসিন্ধু নীরে মায়ার তরঙ্গ, কাল কুন্তীর তাহে করে কত রঙ্গ, এখনি গ্রাসিবে, জীবন নাশিবে, শিবে শঙ্করি ॥ মা, কিসে যাব পারে, পড়েছি দুস্তারে, পারের সাধন সাতার জানি না।— তাতে মনমাজ আনাড়ি, দিতে চায় না পাড়ি, শুনে ছজন দাড়ির মন্ত্রণা। কালি, ভক্তি হালী ছেড়েছে মনমাজী, সাধের তরী ডুবে কালি কিংবা আজি, রসিক বলে তাই, আর বিলম্ব नहे, উপায় কি করি ॥ কল্যাণ–একতাল।। বারংবার, এলাম কত বার, সুধুই পড়ে কচেবারো। পড়ে না পোয়াবারো পাশা, পূর্ণ হয় না আশ, নাহি আর আশা আসিবার ॥ পুণ্যের পঞ্জুড়ি একটি দিন পড়েন, কালীনামের পশয় বাজি জিত হবেনা ঘুটি কেবল কেঁচে বসি, ও মা এলোকেশী, খেলায় হবে আশি লক্ষবার ॥ পাপের আঠারো পড়ে বারে বারে, মুক্তি ঘরে ঘুটি উঠতে না পারে,