পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৫৪৯

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


কুমার নরচন্দ্র । দ্বিজ নরচন্দ্ৰ ভণে, ভার দে কালীর শ্রীচরণে, কালী জ্ঞানে কাল জানে, সদানন্দে থাক রে ॥

  • কালাংড়া-একতালা ।

এমনি মহামায়ার মায়া, রেখেছে কি কুছক করে। ব্ৰহ্মা বিষ্ণু অচৈতী, জীবে কি তা জানতে পারে। গুটীপোকায় গুটী করে, কাটিলে সে ত কার্টুতে পারে, মহামায়ায় বদ্ধ গুটী, আপনার নালে আপনি মরে | বিল করে ঘুনি পাতে, মীন প্রবেশ করে তাতে, যাওয়া আসার দ্বার খোলা, তবু মীন পলাতে নারে। y ভৈববী-পোস্ত । ওরে মন, তোর পায়ে ধরি, যা বলি তা শোন। বিরলে বসিয়ে ভাব, শিবের সেবিত ধন ৷ কি কারণে মহারণে, অচৈতন্য আছ মন, এ যে বেদের বাজি, সকল ফঁকি, হাসের ডিম দেখায় যেমন, তুমি কার কে তোমার, কার জন্তে জালাতন ॥ দেখ, পলকে স্বজন হয়, পলকে হয় পতন। সকল কি তোর সঙ্গে যাবে, যত কর উপার্জন ? মলে, হবে দণ্ডী,দিবে পিণ্ডি, উর্ণা তণ্ডুল সম্ভাবন। তুমি চঞ্চল হয়েছ বড়, যাবে বলে বৃন্দাবন; তোমার হৃদাসনে রাধাকৃষ্ণ, র্তারেই কর দরশন। দ্বিজ নরচন্দ্র কয়, শুমা কভু মেয়ে নয় ; সে যে বজায় বঁশি, ধরে আনি, অস্তে হয় সে নারায়ণ ॥ ... " সিন্ধু ভৈরবী-আড়াঠেকা । কপালে যা আছে কালী, তাই যদি হবে । ঐদুর্গ জয়দুর্গ বলে, কেন ডাকি তবে ॥ ললাটে লিখিছে বিধি, তাই বলবান যদি, וו הrפסת בקצ26", ולriכזfeta cura sta 86. A সিন্ধু ভৈরবী—আড়াঠেকা । কিঙ্করে করুণাময়ী, ধন দিবে মা কি ধন আছে। যেবা ধন তোর রাঙ্গাচরণ, তাও বাধা ইরের কাছে | যদি পাই মা যোগে যাগে, বিষ খেয়ে শিব আছেন জেগে । ঘুম নাই তার ধনের লেগে, ঘুমেরে ঘুম পাড়ায়েছে। η πmnn পিন্ধু ভৈরবী—আড়াঠেকা । কি করি মনকরী, মন্ত অনিবার তারা । ভ্ৰমিছে বিষয়ারণ্যে, প্রাণপণে না দেয় ধরা ॥ পরমার্থ পঙ্কজ বন, সদা করিছে টুলন; নিষেধ পাশ মানে না বারণ, আমি ভক্তি আলীন হার ॥ কুতান্ত কেশরী ভয়, গণে অতি তুচ্ছাশয়। কুমতি মাতঙ্গী তার, পেয়ে প্রিয়তম দারা ॥ আমি যে বিষয়াশক্ত, আছে শ্রীচরণে ব্যক্ত । কৃপা করি কর মা মুক্ত, জননী এবার তারা। সিন্ধু ভৈরবী—আড়াঠেকা । কেমন মেয়ের মেয়ে শ্ৰাম, দেখ দেখি মন বিচার করে । এমন মেয়ে না হলে কি, হরের মন ভুলাতে পারে। মহাযোগী মৃতুঞ্জয়, তার মনহরা কঠিন হয়। অন্ত মেয়ের কৰ্ম্ম নয় মন, মদন যারে শঙ্গা করে | ভৈরবী—সং । কেন মিছে মা মা করমায়ের দেখা পাবে নাই। থাকূলে আসি দিত দেখা, সৰ্ব্বনাশী বেঁচে নাই। শ্মশানে মশানে কত, পীঠস্থান ছিল যত, খুঁজে হলেম ওষ্ঠীগত, কেন আর যন্ত্রণ পাই, . বিমাতার তীরে গিয়া, কুশপুতুল দাহাইয়া, অশৌচান্তে পিণ্ড দিয়া, কালশোঁচে কাশী যাই। দ্বিজ নরচন্দ্র ভণে, ( মন ) মায়ের জন্ত ভাব কেনে, ম{ rarচ নাম বন্ধ আচে তরিবার ভাবনা नाहे |