পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৯২৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


bW38 दांछांदोंौग्न नॉन । সুদূর নীলাম্বর প্রাস্ত সঙ্গে নীলিম তব মিশিতেছে রঙ্গে, চুমি পমধূলি বহে নদীগুলি, রূপসী শ্রেয়সী হিতকারিণী। তাল-তমালদল নীরবে বন্দে, বিহঙ্গ স্তুতি করে ললিত সুছন্দে, আনন্দে জাগ অগ্নি কঙ্গালিনি! কিসের দুখ মাগে, কেন এ দৈন্ত, শুষ্ঠ শিল্প তব, বিচূর্ণ পণ্য, হা অন্ন, হা অন্ন,—কাদে পুত্ৰগণ । ডাক মেঘমন্সে ফুসুপ্ত সবে, চাহ দেখি সেবা জননী-গরবে, জাগিবে শক্তি, উঠিবে ভক্তি, জান না আপনায়, সস্তানশালিনী । κmunumωπο 靶 মিশ্ৰ-খাম্বাজ—কাওয়ালী । শুভদিনে শুভক্ষণে গ{হ আজি জয়, গাহ জয়, গাহ জয়, মাতৃভূমির প্রয় ! জয় জয় জয়, মাতৃভূমির জয় ॥ জন্মভূমির জয়, স্বর্ণভূমির জয়, পুণ্যভূমির জয়, মাতৃভূমির জয় ! লক্ষ মুখে ঐক্যগাথা রটাও জগতময়, মুখ স্বস্তি স্বাস্থ্য স্বার্থ দিলাম তোমার পায়, যতদিন মা তোমার বক্ষ জুড়য়ে না যায়, কে মুখে ঘুমায়, কে জেগে বৃথায় ? মায়ের চোখে অশ্রুধারা, সে কি প্রাণে সয় । নূতন উষায় গাহে পার্থী নতন জাগান সুর, উঠ, রাণী কাঙ্গালিনী দুঃখ হল দূর, অলস আঁখি মেল, মলিন বসন ফ্যাল, উঠ মাগে, জাগো জাগো, ডাকে পুত্ৰচয়! মিশ্র-সিন্ধু—ঝাপত্তাল । ( হের , কি মহামঙ্গল রাজে, কি মধু মিলন বঙ্গসমাজে ॥ আপনজনরে নিলে যদি চিনি, হিয়া দিয়া হিয়া লহু আজি জিনি, এক শোণিতধারা বহে পীযুষ পারসবার ধমনী মাঝে ! কি মুখ-হিক্সেল বহে পবনে, কি সুধা-কঙ্গোল উঠে গগনে, সারা ভুবন কি শোভায় সাজে ! এস এস ছাড়ি দ্বিধা ভয় লাজ, সঁপি দেহ ভাই হৃদয় আজ, ল’য়ে প্রসন্নতা স্থির একাগ্রতা, এ শুভ সুন্দর কাজে । इसिन0-भ१ाभांन । রাজ', ঈদে রাজ, হুদয়ের অধিরাজ। পন্থ বহুদর, অন্ধ চলেছি এক, জ্বাল দীপ আজি জাল আঁধার মাঝ । হেরিছ অন্তর অন্তর্যামী, দিন দিন মোহে ডুবিছি আমি ; ক্লাস্তি-কলুষ নাশ, মুছাও নয়নধারা, কর দূর, আজি দূর প্রাণের লাজ ! মিশ্র-কানাড়1–fটমে তেতাল । কেন ভুলালে, মনোমোহন ? যদি নাহি দিবে তব দরশন ॥ পিয়াদে বসিয়ে থাকি, দুরাশে তোমারে ডাকি কোথা নাথ, কোথা নাথ-ভসে দু'নয়ন। এসেছে দ্বারে ভিখারী আশে তোমারি, যদি নাহি নিবে মালা, কেন ভরালে ডালা, কেন ডাকিগে, কেন মোহিলে আমারি মন । छघ्र भद्रभंछघ्नौ, उद छन्न ! छग्न, छद्र, छः । জ্ঞান গুণের সাগর, দীনের দুখ নাশন, অতুল তব কীৰ্ত্তি, অটুট অব আসন, স্মরিছে তোমা কোটি হৃদয় ॥ দীন মোরা হীন অতি, পরপীড়িত জাতি, ভাবী ঢাকা তিমিরে, স্নান অতীত-ভাতি ; সহসা দূর পার হতে তব আশীষ লাগে, শিহরি সব প্রাণ, নব গরবে জাগে ; ঘোষে তোমার বাণী—অভয় ॥ খটগৌরী-একতাল।। আমার প্রাণভরা প্রেম বিফলে গেল, দেখিল না কেহ চাহি!