পাতা:বাঙ্গালীর গান - দুর্গাদাস লাহিড়ী.pdf/৯৩২

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


by 89 বাঙ্গালীর গান । तिङांव-4कछांणां । ওহে দীননাথ, কর আশীৰ্ব্বাদ, এই দীনহীন দুৰ্ব্বল সস্তানে। যেন এ রসনা, করে হে ঘোষণা, সত্যের মহিমা জীবন-মরণে; তোমার আদেশ সদা শিরে ধরি, চির ভূত্য হয়ে রব আজ্ঞাকারী, নির্ভয় অস্তরে, বলব দ্বারে ধারে, মহাপাপী তরে দয়াল-নামের গুণে। অকপট-হদে তোমারে সেবিব, পাপের কুমন্ত্রণ আর না শুনিব, যা হবার তাই হবে, যায় প্রাণ যাবে, তব ইচ্ছা পূর্ণ হোকৃ এ জীবনে । নিত্য সত্য-ব্রত করিব পালন, মন্ত্রের সাধন কি শরীর পতন, ভয়-বিপদ-কালে, ডাকৃব পিতা বলে, লইব শরণ ঐ অভয় চরণে ॥ भल्लाँध्न-यषूिl । কেন হে বিলম্ব আর সাজ সত্যের সংগ্রামে। সেনাপতি বিশ্বপতি সহায় রণে ॥ কর ব্রহ্মনাম-ধ্বনি, কাপায়ে গগন মেদিনী, বিশ্বাসের পরাক্রম দেখাও জীবনে। ব্ৰহ্ম কৃপাহি কেবল কর সঙ্গের সম্বল, শান্তি-অসি ধরি বিনাশ রিপুগণে । লোক-ভয় পরিহরি চল চল ত্বরা করি, প্রভু-আজ্ঞা পালন কর প্রাণপণে। সাধিতে পিতার কাজ, পর হে সমর-সাজ, বাজায় বিজয় ভেরী গভীর গরজনে ; বিবেক নিৰ্ম্মল হয়ে বল অকপট-হৃদয়ে, জীবের নাহি আর গতি, দয়াল নাম বিহনে ॥ मिर्थं 4छाउँौ-श९ ।। আহা কি অপরূপ হেরি নয়নে । মিলে বন্ধুগণে, প্রীতি-প্রফুল্ল-হুদয়ে, ভক্তি-কমল ল’য়ে করেন অঞ্জলি দান . বিভুচরণে ॥ ‘. . তরুশ ভানু-কিরণে, প্রভাত-সমীরণে, 7 অমুরঞ্জিত নবজীবনে। প্রকৃতি মধুর স্বরে, ব্ৰহ্মনাম গান করে, আনন্দে মগন হয়ে পিতার প্রেমে। উংসব মন্দিরে আজ, বিশ্বপতি ধৰ্ম্মরাজ, করেন বিরাজ রাজসিংহাসনে ; মরি কি সুন্দর শোভা, পুণ্যময়ের পুণ্যপ্রভা কৃতাৰ্থ হইল প্রাণ দরশনে , , স্নেহময়ী মাতা হয়ে পুত্ৰকস্তাগণে লয়ে, বসেছেন আনন্দময়ী, আনন্দধামে ; নিমন্ত্রণ করি সবে, এনেছেন মহোৎসবে, বিতরিতে প্রেম-অন্ন ক্ষুধিত-জনে। ললিত্ত—একতাল । ও হে প্রভু দয়াময় তোমার কৃপায়, রক্ষিত হইল শিশু জরায়ু-শয্যায় ॥ তব পদে বারস্বর, করি আজ নমস্কার, অপর্ণ করিমু ৰিভূ, এ শিশু তোমায়। তুমি সিদ্ধিদাত পিতা মঙ্গলময় বিধাতা, শুভকৰ্ম্ম সম্পাদন কর আশীৰ্ব্বাদ দানে ; এই নব দম্পতীরে, রাধ দাস-দাসী করে, চির জীবনের মত তোমার চরণে ॥ ঝিল্মিট નાના-ફ્રી | এত দয়া পিতঃ তোমার, ভুলিব কোন প্রাণে আর দেবের দুর্লভ তুমি, ব্রহ্মাণ্ডের স্বামী, দীন হীন আমি অকিঞ্চন হে ; তবু পুত্র বলে স্থান দিয়ে কোলে, পদে পদে বিপদে করিছ উদ্ধার। পড়ে অকূল সাগরে, যখন ডাকি কাতরে, ব্যাকুল হইয়ে কোথা দয়াময় বলে হে ; তখন কাছে এসে, সুমধুর ভযে, তাপিত হৃদয়ে শাস্তি দাও হে আমার । কে জানে এমন করে, ভালবাদীতে পাপীরে, তোমার মতন ভূমণ্ডলে হে ; আমি জন্মাবধি, কত অপরাধী, তথাপি দুৰ্ব্বল বলে ক্ষম বারম্বার। জানিলাম নানামতে, তোমা বিনা এ জগতে; কেহ নাহি আর আপনার হে ; ধন্ত ধগু মাখ, করি গ্ৰণিপাত, બર્મિોણra સારા જશ માંસ ||