প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:বিচিত্রিতা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/১৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বারে বারে বনে বনে জন্ম লই নব নব বেশে নব নব দেশে । যুগে যুগে রূপে রূপান্তরে ফিরিনু সে কী সন্ধান তরে স্বজনের নিগুঢ় উদ্দেশে ॥ অবশেষে দেখিলাম কত জন্মপরে নাহি জানি ওই মুখখানি । বুঝিলাম আমি আজো আছি প্রথমের সেই কাছাকাছি, তুমি পেলে চরমের বাণী ॥ তোমার আমার দেহে আদি ছন্দ অাছে অনাবিল আমাদের মিল । তোমার আমার মৰ্ম্মতলে একটি সে মূল স্বর চলে, প্রবাহ তাহার অন্তঃশীল ॥ কী যে বলে সেই সুর, কোনদিকে তাহার প্রত্যাশা, জানি নাই ভাষা । আজ সখি বুঝিলাম আমি, সুন্দর আমাতে আছে থামি', তোমাতে সে হোলো ভালোবাসা ॥