প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:বিচিত্রিতা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/২৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বিচিত্রিতা পসারিণী পসারিণী, ওগো পসারিণী, কেটেছে সকালবেলা হাটে হাটে ল’য়ে বিকি-কিনি । ঘরে ফিরিবার খনে কী জানি কী হোলো মনে বসিলি গাছের ছায়াতলে, লাভের জমানো কড়ি ডালায় রহিল পড়ি', ভাবনা কোথায় ধেয়ে চলে ॥ এই মাঠ, এই রাঙা ধুলি, অভ্রাণের রৌদ্রলাগা চিকণ কাঠাল পাতাগুলি, শীত বাতাসের শ্বাসে . এই শিহরণ ঘাসে, কী কথা কহিল তোর কানে । বহুদূর নদীজলে অালোকের রেখা বলে, o ধ্যানে তোর কোন মন্ত্র অানে ॥