প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:বিচিত্রিতা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.djvu/৪৫

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


সে যবে আজি এলো ঘরে জ্যোৎস্নারেখা পড়েছে মোর পরে শিরীষ ডালের ফঁাকে ফঁাকে । ভেবেছিলেম বলি তাকে — “দেখো আমায়, জানো অামায়, সত্য ডাকে আমায় ডেকে লহো, সবার চেয়ে গভীর যাহা নিবিড় ভাষায় সেই কথাটি কহে। হয়নি মোদের চরম মন্ত্র পড়া, হয়নি পূর্ণ অভিষেকের তীৰ্থজলের ঘড়ী, আজ হ’য়ে যাক মালাবদল যে মালাটি অসীম রাত্রিদিন রইবে অমলিন।” হঠাৎ ব’লে উঠল সে যে, ক্রুদ্ধ নয়ন তার, গড়ের মাঠে তাদের দলের হার হয়েছে, অন্যায় সেই হার । বারে বারে ফিরে ফিরে খেলা-হারের গ্লানি জানিয়ে দিল ক্লান্তি নাহি মানি । বাতায়নের সমুখ থেকে চাদের আলো নেমে গেল নীচে, তখনে৷ সেই নিদ্রাবিহীন কোকিল কুহরিছে।