প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:বিষাদ-সিন্ধু এজিদ্‌-বধ পর্ব.pdf/১৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


দ্বিতীয় প্রবাই । so थामवश्ब्र०६षांबना उनिद्रा दकौशृश् श्हेड बाहिब इईनि ? . थांबांब बन অস্থির—বিকার প্রাপ্ত । কি বলিতে কি বলি, তাহার স্থিরতা নাই। বন্দীখানায় থাকিলে, ছৰ্দান্ত পিশাচ মারইয়ানের হস্ত হইতে তোকে কুখনই রক্ষা করিতে পারিতাম না। আমার ক্রোড় হইতে কাডিয়া লইয়া যাইত , হায় ! হায় । সে সময় তোর মুখের দিকে চাহিয়া আমার কি দশ ঘটিত ? বাপ ! তুমি বুদ্ধির কাজ করিয়াছ। এজুিদ জীবিত থাকিতে লোকালয়ে আর আসিও না । বনে, জঙ্গলে, গিরিগুহায় লুকাইয়া থাকিও । বনের ফল, মূল, পাতা খাইয়াঙ্গীবনধারণ করিও। কখনই লোকালয়ে আসিও নু। আর না হয় যে দেশে এজিদের নাম নাই, তোমার নাম নাই—ন্স দেশে যাইয়া ভিক্ষা করিয়া জীবন কাটাইও । তাহাতেই সাহার বামুর প্রাণ শীতল থাকিবে ।" - একি ! প্রহরীগণ ছুট ছুটী করে কূেন ? প্রহরীগণ উর্দ্ধশ্বাসে ছটিয়াছে। যে যেখানে ছিল, সে সেই স্থান হইতে ছুটিয়াছে। পরম্পর দেখা হইতেছে, কথাও হইতেছে—কিন্তু বড় সাবধানে— চুপে চুপে। কথা কহিতেছে—পরামর্শ কবিতেছে—সাবধান হইতেছে— আত্মরক্ষার উপায় দেখিতেছে। কেন ? কি সংবাদ?—দেখুন-আশ্চৰ্য্য দেখুন। একজন প্রহরী ছুটয় আসিয়া বৃদ্ধমন্ত্রী হামানের কাণে কাণে চুপি চুপি কি কহিয়, ঐ দেখুন কি করিল দ্রুতহন্তে লৌহপূখল কাটিয়া ফেলিল। এবং হোসেন-পরিবার ব্যতীত অন্ত অষ্ঠ বন্দীগণকে কারাগার হইতে মুক্ত করিয়া সম্বরে বাহির করিয়া দিল। বন্দীগণ অবাক! কেকু কোন কথা কচিতেছে না। সকলেই যেন"ব্যস্ত। পলাইতে পারিলেই রক্ষা !—জীবন রক্ষা ! 0 দ্বিতীয় প্রবাহ। সমরাঙ্গনে, পরাজয়-বাঁয়ু একবার বহিরা গেলে, সে বাতাস ফিরাহয়৷ বিজয়-নিশান উড়ান বডই শক্ত কথা। পৰাজয়-বায়ু হঠাৎ চারিদিক হইতে মহা বেগে রণক্ষেত্রে প্রবেশ করে না ; প্রথমতঃ মন্ত্ৰ মন গতিতে রহিয়া রহিয়া বহিতে থাকে। পরে বাজাবাত সহিত তুমুল ঝড়ের স্বাক্ট কৰিয় দেয়। জিতপক্ষের ঘন ঘন হুঙ্কার, জন্ধের সঞ্চালন—সে সময়, পি - " |