পাতা:বীথিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/১১৬

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


মেঘমালা আসে অবগুণ ঠিতা প্রভাতের অরুণ দুকূলে শৈলতটমূলে আত্মদান অর্ঘ্য আনে পায় ; তপস্বীর ধ্যান ভেঙে যায়, গিরিরাজ কঠোরতা যায় ভূলি’, চরণের প্রান্ত হতে বক্ষে লয় তুলি’ সজল তরুণ মেঘমালা । কল্যাণে ভরিয়া উঠে মিলনের পালা । আচলে চঞ্চলে লীলা, সুকঠিন শিলা মত্ত হয় রসে । উদার দাক্ষিণ্য তা’র বিগলিত নিঝরে বরষে, গায় কলোচছল গান । সে দাক্ষিণ্য গোপনের দান এ মেঘমালারি ।