পাতা:বীথিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৪০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বীথিক কখন যে আসে কাছে, দাও ছিন্ন করি? মোর অস্পষ্টত । তখন বুঝিতে পারি, আছি আমি একান্তই আছি মহাকাল-দেবতার অন্তরের অতি কাছাকাছি মচেন্দ্র মন্দিরে ; জণ গ্ৰত জীবনলক্ষী পরায় আপন মাল্যগাছি উন্নমিত শিরে ॥ তখনি বুঝিতে পারি, বিশ্বের মহিম। উচ্ছ,সিয়া উঠি রাখিল, সন্তায় মোর রচি’ নিজ সামা, আপন দেউটি । স্বষ্টির প্রাঙ্গণতলে চেতনার দাপশ্রেণী মাঝে সে দাপে জ্বলেছে শিখ উৎসবের ঘোষণার কাজে ; সেই তো বাখানে অনিৰ্ব্বচনায় প্রেম তান্তহীন বিস্ময়ে বিরাজে দেহে মনে প্রাণে ॥ ৫ই শ্রী পণ, ১৩৪০ ৷ ミ8