পাতা:বীথিকা-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর.pdf/৭৩

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


বীথিকা জলভারনত মেঘে তমাল বনের পরে তাছে লেগে সকরুণ ছায়া সুগম্ভীর,— তোমার ললাট পরে সেই মায়া রহিয়াছে স্থির । ক্লান্তত শ্র রাধিকার বিরহের স্মৃতির গভীরে স্বপ্নময়া যে যমুনা বহে ধীরে শান্তধারা কলশবদহার তাহারি বিষাদ কেন অতল গাম্ভীৰ্য্য ল’য়ে তোমার মাবারে হেরি মেন । শ্রাবণে অপরাজিতা, চেয়ে দেখি তারে আঁখি ডুবে যায় একেবারে – ছোটে। পত্রপুটে তার নীলিমা করেছে ভরপুর, দিগন্তের শৈলতটে অরণ্যের হুর বাজে তাহে, সেই দূর আকাশের বাণী এনেছে আমার চিত্তে তোমার নির্ববাক মুখখানি ॥ “མིང་༨.༤ ১৩ শ্রাবণ, ১৩৩৯ । C: 이