পাতা:বুয়র ইতিহাস - প্রিয়নাথ মুখোপাধ্যায়.pdf/৬৮

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা হয়েছে, কিন্তু বৈধকরণ করা হয়নি।

৬৪

বুয়রদিগের উৎপত্তি।

তদ্ব্যতীত, যে ক্রীতদাসদিগের উপর শ্বেতাঙ্গগণ যথেচ্ছা ব্যবহার করিতেন, ১৮৩৪ খৃষ্টাব্দের ১লা ডিসেম্বর তারিখ হইতে, পার্লিয়ামেন্টের আদেশানুযায়ী, সেই দাসব্যবসা উঠাইয়া দেওয়া হইল; ও যাঁহারা পূর্ব্বে দাস ক্রয় করিয়া রাখিয়া ছিলেন, তাঁহাদিগকে যৎসামান্য অর্থ প্রদান পূর্ব্বক, ঐ ক্রীতদাসগণকে দাসত্ব হইতে মুক্তি প্রদান করিয়া, তাহাদিগকে অপরাপর প্রজাগণের সহিত সমান অধিকার প্রদত্ত হইল। এইরূপে কেবলমাত্র এই প্রদেশ হইতে প্রায় ৩৯,০০০ সহস্র ক্রীতদাসকে দাসত্ব হইতে মুক্তি প্রদান করা হয়।

 শাসনকর্ত্তা এই সময়ে সেই প্রদেশীয় অসভ্য জাতির সহিত বন্ধুত্বস্থাপন করিবার চেষ্টা করেন; কিন্তু তাহাতে কৃতকার্য্য হন না। ১৮৩৪ খৃষ্টাব্দে, ষষ্ঠ কাফির-যুদ্ধ আরম্ভ হয়। ঐ খৃষ্টাব্দের ২১শে ডিসেম্বর তারিখে, প্রায় ২০,০০০ সহস্র কোষা ইংরাজ অধিকারের মধ্যে প্রবিষ্ট হইয়া, সনডে নদীর পূর্ব্ব পার্শ্বস্থ বুয়রদিগের গৃহ সকল ভস্মীভূত করিয়া দেয়; যে কোন শ্বেতাঙ্গকে সম্মুখে দেখিতে পায়, তাঁহাকেই বিনষ্ট ও সেই প্রদেশীয় সমস্ত পশ্বাদি অপহরণ করিয়া প্রস্থান করে।

 ইংরাজগণ তাঁহাদিগের বেতনভোগী সৈন্য ও কৃষিজীবী শ্বেতাঙ্গগণকে একত্র করিয়া, উপরোক্ত কোষাদিগের বিপক্ষে অস্ত্রধারণ করেন। কিন্তু তাহারা সম্মুখ যুদ্ধে উপনীত না হইয়া, জঙ্গলে আশ্রয় গ্রহণ করে ও পরিশেষে ১৮৩৫ খৃষ্টাব্দে আত্মসমর্পণপূর্ব্বক, ইংরাজ গভর্ণমেণ্টের শরণাগত হয়।