প্রধান মেনু খুলুন

পাতা:ময়ূখ - রাখালদাস বন্দ্যোপাধ্যায়.djvu/১৫৯

এই পাতাটিকে বৈধকরণ করা হয়েছে। পাতাটিতে কোনো প্রকার ভুল পেলে তা ঠিক করুন বা জানান।
১৫১
দ্বাবিংশ পরিচ্ছেদ

করল, জল্লাদ কুঠার উঠাইল। সহসা তীব্র উজ্জ্বল সূর্য্যালোকে কক্ষ উদ্ভাসিত হইয়া উঠিল, মুহূর্ত্তের জন্য সকলে দৃষ্টি শক্তি হারাইল। পরক্ষণেই খোজাগণ অস্ত্র ত্যাগ করিয়া ভূমি চুম্বন করিল। শাহ্‌জাদীর মুখ শুখাইয়া গেল, গুলরুখ্‌ শিহরিয়া উঠিলেন। ময়ূখ দেখিতে পাইলেন যে, অন্ধকারময় কক্ষের একদিকের প্রাচীর সরিয়া গিয়াছে, সেই স্থানে প্রশান্তমূর্ত্তি অপরূপ সুন্দরী একজন রমণী দাঁড়াইয়া আছেন। সহসা তাহার মনে আশার সঞ্চার হইল। খোজা তাহাকে পরিত্যাগ করিয়াছিল, ময়ূখ একলম্ফে সেই মাতৃমূর্ত্তির সমীপবর্ত্তী হইলেন এবং তাঁহার পদযুগল ধারণ করিয়া কহিলেন, “মা!”

 মাতৃমূর্ত্তি তাঁহার মস্তকে হস্তাপর্ণ করিয়া কহিল, “বেটা, ডর্‌ নেহি।”


দ্বাবিংশ পরিচ্ছেদ

গোসল্‌খানা

 দরবার আম শেষ হইল, বাদশাহ্‌ সিংহাসন হইতে উঠিলেন। দেওয়ান-ই-আমের পশ্চাদ্ভাগে দ্বিরদরদনির্ম্মিত সুবর্ণমণিমুক্তাখচিত বিচিত্র নাল্‌কী লইয়া আটজন তাতারী অপেক্ষা করিতেছিল, বাদশাহ্‌ তাহাতে আরোহণ করিয়া প্রস্থান করিলেন। অন্যান্য সভাসদ্‌গণ নাকারাখানার ফটক দিয়া প্রস্থান