পাতা:মীরকাসিম - অক্ষয়কুমার মৈত্রেয়.pdf/১২০

এই পাতাটির মুদ্রণ সংশোধন করা প্রয়োজন।


0 মীয় কাসিম করিয়া ইউরোপীয় সমর-কৌশল প্ৰদৰ্শন করেন। তাহদের ত্বরিত গতি, তাহাদের অপূর্ব অস্ত্ৰ-চালনা-কৌশল, তাহদের অদ্ভুত রণশিক্ষা দেখিয়া মীর জাফর বিস্মিত নয়নে মীর কাসিমকে বলিয়াছিলেন, “ইউরোপীয় সমরকৌশল সৰ্ব্বথা অনুকরণযোগ্য, দূর হইতে ইহাদিগকে আক্রমণ করা অসম্ভব, নিকটে পাইলে একবার দেখা যাইতে পারে।” কথা গুলি মীর কাসিমের হৃদয়ে দৃঢ়মুদ্রিত হইয়াছিল। তিনি সময় পাইয়া, বাহুবলের সঙ্গে সমর-কৌশল মিলিত করিবার জন্য আয়োজন করিতে লাগিলেন । তীব্ৰ প্ৰতিবাদ করিয়া ফল হইল না, কলিকাতায় ইংরাজ দরবারে সকরুণ আবেদন করিয়া কোন ফল হইল না-হেষ্টিংস এবং গভর্ণর ভাফিসটার্ট ভিন্ন ইংরাজ মাত্রেই যে কোন উপায়ে অর্থে পাৰ্জন করিবার জন্য ব্যাকুল। সুতরাং বাহুবলে বাণিজ্য রক্ষা করিবেন বলিয়াই মীর কাসিম এই সকল সামরিক অনুষ্ঠানে লিপ্ত হইতে লাগিলেন।